কবি মাফরুহা মিতু আহসানের একগুচ্ছ কবিতা

 

১। ধুসর গোধূলি

ধুসর গোধূলি বেলায়
সূর্য ডুবে যাওয়া
আলো আঁধারেতে
লুকোচুরি খেলা
নিসর্গ প্রকৃতি
হাতছানি দিয়ে যায়
শীতল অনুভবে
অপরূপ স্নিগ্ধতায়
ফেরারী পাখিরা
নীড় খুঁজে ফিরে
নিস্তব্ধ নিরাবতা
দিগন্তে মিশে যায়
অস্তমিত আলোকছটা
যেন কিছু প্রশ্ন
সাদাকালো স্বপ্ন
কিছু না বলা কথা।

২। মনের ক্যানভাস

আয়নায় আজ নিজেকে আকঁছি
আর ভাবছি, কে এই আমি?
যেন অন্য চোখে দেখা
অজানা অচেনা আমি।

আমার আমিকে ভাবছি দেখে
যেন কখনও দেখিনি আগে,
নতুন করে দেখছি আবার
তাই তো অচেনা লাগে৷।

আমার মাঝে এই যে আমি
মন দিয়ে দেখিনি আগে
অপলক তাই চেয়ে থাকি
বড্ড মায়াবী লাগে।

মনের ক্যানভাসে ছোট্ট আয়নায়
দেখতে হয় না রোজ
মন চিনেছি আপন আলোয়
নাইবা নিলাম খোঁজ।

৩। আসা যাওয়ার খেলা

মৃত্যু যেন পাশের ঘরে
ঘাপটি মেরে থাকে
কখন যেন নামটি ধরে
এই বুঝি এই ডাকে
জন্ম হলে মৃত্যু হবেই
ফিরতে হবে তারই কাছে
কেউ আগে কেউ বা পরে
আসা যাওয়ার নানান ছলে
এই তো ভবের খেলা
জন্ম আসে মৃত্যু নিয়ে
শুরু হলে শেষ আছে
ভাবছো কেন মিছেমিছে
যেতে হবে আগে পিছে
সকাল সন্ধ্যা কিংবা সাঝেঁ
কখন যে কার ঘন্টা বাজে
মৃত্যু তখন তোমায় খুঁজে
যেতেই হবে তারই কাছে
আপন জনা ফেলে।