৪০দিনে দ্বিতীয় ঘটনাঃ রূপগঞ্জে গুলিবিদ্ধ ডাকাতের লাশসহ শ্যুটারগান উদ্ধার!

 

রূপগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ): নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় আবুল হোসেন (৪০) নামে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের এক সদস্যের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবি, নিজেদের দুই পক্ষে গোলাগুলিতে সে মারা গেছে। ৪০দিনের ব্যবধানে এ ধরনের ডাকাতির মালামাল বন্টনের দ্বন্ধে গুলিবিদ্ধ ডাকাতের লাশ উদ্ধারের দ্বিতীয় ঘটনা ঘটলো।
শনিবার(২০ অক্টোবর) ভোরে উপজেলার গোলাকান্দাইল টংলারচর এলাকা থেকে ওই লাশ উদ্ধার করা হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শ্যূটারগান,১ রাউন্ড গুলি ও ১টি চাপাতি উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত আবুল হোসেন সোনারগাঁয়ের দক্ষিনপাড়া এলাকার সোনা মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক ডাকাতির মামলা রয়েছে।

রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, রাতে ডাকাতির মালামাল ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে ডাকাতদের মধ্যে গোলাগুলি হয়। এসময় আবুল হোসেন মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে সেখানে পড়ে কাতরাতে থাকে। সকালে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে থানা পুলিশকে জানায়। পরে পুলিশ তাকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পরে ময়না তদন্তের জন্য লাশ নারায়ণগঞ্জ সদরের ১শ’ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ১টি ওয়ান শ্যুটার গান, ১ রাউন্ড গুলি ও ১টি চাপাতি উদ্ধার করেছে।

উল্লেখ্য, এর আগেও  (১১ সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার) ভোরে রূপগঞ্জ উপজেলার পূর্বাচল ৮ নম্বর সেক্টরে  ডাকাতির মালামাল ভাগাভাগি নিয়ে্ ডাকাতদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় দেলোয়ার হোসেন ওরফে রাজা নামে এক ডাকাত গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়। নিহত ডাকাত রাজা রাজধানী ঢাকার গেন্ডারিয়া এলাকার ফুল মিয়ার ছেলে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি শ্যুটার গান ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে।