মৎস্য উৎপাদনের মধ্যে প্রায় ১২ ভাগই ইলিশ – ইউএনও শারমিন আক্তার

মো. দ্বীন ইসলাম, মতলব উত্তর (চাঁদপুর) :  এ্যানহ্যান্সড কোস্টাল ফিশারিজ ইন বাংলাদেশ প্রকল্পের আয়োজনে মতলব উত্তরে ইলিশ সংরÿণকল্পে সহ-ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম অবহিতকরণ ও কাউন্সিল গঠন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার(১৮ অক্টোবর) সকালে উপজেলা পরিষদ মায়া বীরবিক্রম অডিটোয়ামে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন- উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারনম্যান নিলুফা আক্তার, সিএনআরএস’র প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর ইকোফিস এনআরএম এক্সপার্ট মাসুদ সিদ্দিক, ওয়াল্ডফিস ইকোফিস প্রকল্প ম্যানেজার ড. এবিএম মাহফুজুল হক, ফিল্প কো-অর্ডিনেটর মামুনুর রশিদ, উপজেলা প্রাণী কর্মকর্তা ডা. ফারুক হোসেন, কৃষি কর্মকর্তা মো. সালাউদ্দিন, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা তারিক মাহমুদ হোসেন, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কাজী ইসরাত জামান, শিক্ষা অফিসার ইকবাল হোসেন ভূঁইয়া, সমাজসেবা কর্মকর্তা রুহুল আমিন।

ইউএনও শারমিন আক্তার বলেন, ইলিশ আমাদের জাতীয় মাছ, যা এ দেশের অর্থনীতি, কর্মসংস্থান ও প্রাণিজ আমিষ সরবরাহে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। বাংলাদেশের মোট মৎস্যসম্পদের মধ্যে একক প্রজাতি হিসেবে ইলিশের অবস্থান সর্ববৃহৎ ও সর্বাপেক্ষা গুরুত্বপূর্ণ। দেশের মোট মৎস্য উৎপাদনের মধ্যে প্রায় ১২ ভাগই ইলিশ। মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) এর অবদান প্রায় ১ ভাগ। দেশের ১৪৫ উপজেলার ১ হাজার ৫০০ ইউনিয়নের ৪ লাখ ৫০ হাজার জেলে ইলিশ মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করে। এর মধ্যে ৩২ ভাগ সর্বক্ষণিকভাবে এবং ৬৮ ভাগ খÐকালীনভাবে এ পেশায় নিযুক্ত। ইলিশ আহরণ ছাড়াও বিপণন, পরিবহন, প্রক্রিয়াজাতকরণ, রপ্তানি, জাল-নৌকা তৈরি ইত্যাদি কাজে প্রায় ২০-২৫ লাখ লোক জড়িত।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিভাগীয় কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, জেলে প্রতিনিধিসহ ইকোফিস এর কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন।