আত্মকথা – ৪

– মহুয়া বাবর

আকাশে এখন তারাদের ভীড়
রাতের গভীরতায় প্রকৃতি নিবিড়
পৃথিবী ঘুমিয়ে পড়েছে রাতের আলিঙ্গনে
তোমাকে দেখার জন্য ছাদে কিংবা জানালায় থাকিনা
কারণ তুমি নিজেই আসো আমার অনুধ্যানে

কিছুদিন থেকে মেঘেরা তোমাকে আড়াল করে জানি
তবু মেঘের সাথে আমার নেই তো কোনো আড়ি
সেতো থাকেনা এক জায়গায় বসে চুপ
শরতের কাশফুলের মতো উড়ে হয় ধূপ
কখনো কালো চুল হয়ে ঢেকে দেয় তোমার নিষন্নে

যদি বলি তুমি পাহাড় তবে আমি সমতল
তোমার এক বিন্দু কিরণ নদীর শত ঢেউ করে ঝিলমিল
আমি বিলের ধারে বেড়ে ওঠা নামহীনা ছোট্ট ঘাস ফুল
কেবল একটি বার দেখবো বলে চেয়ে থাকি অনুক্ষণ

নিঃসঙ্গ অনুভূতিরা ঘনিভূত হয় রাতের স্তব্ধতায়
হাসনাহেনা তোমায় দেখে জেগে ওঠে অপার সৌরভে
চারিদিকে অযুত তারার মিছিল
তবু আমার নিঃসঙ্গতা পায়না কিনার।