নির্বাচন কমিশন চাইলেই কেবল সেনা মোতায়েন হবে- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ফতুল্লা(আজকের নারায়নগঞ্জ):  গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্টমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, যাদের আশঙ্কা থাকে নির্বাচনে পরাজিত হবে, যাদের আশঙ্কা থাকে নির্বাচনে জনগণ তাদের ভোট দেবে না, কেবল তারাই সেনাবাহিনী কিংবা আরো কিছু বাহিনীর স্বপ্ন দেখে৷ নির্বাচন কমিশন যদি প্রয়োজন মনে করে তাহলে সেনাবাহিনী প্রস্তুত আছে৷ নির্বাচন কমিশন চাইলেই কেবল সেনা মোতায়েন হবে৷ আওয়ামীলীগ কখনো সেনাবাহিনী চায়নি৷

বৃহস্পতিবার (১৮ অক্টোবর) দুপুরে ফতুল্লা পাগলায় অবস্থিত মেরি এন্ডারসনে নৌ-পুলিশকে ৪টি পেট্রোলবোট ও ২টি জেটি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন৷

দুটি দলের বিশ দলীয় জোট ছেড়ে যাওয়ার ব্যাপারে৷ বিএনপির অভিযোগ নিয়ে প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ;বিশ দলে যখন ওই দুই দল ছিল তখন তো আওয়ামীলীগকে জিজ্ঞেস করে দলে নেয় নাই বা আওয়ামীলীগের কথায় নেয় নাই ৷ এখন চলে গেছে বলে আওয়ামীলীগকে দোষ দিতে এলে তো চলবে না৷ এখানে আওয়ামীলীগের প্রশ্ন আসবে কেন?

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ এ কে এম শামীম ওসমান,বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মো.জাবেদ পাটোয়ারি, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের জনপ্রশাসন ও নিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামালউদ্দিন, নৌ পুলিশের ডিআইজি শেখ মো মারুফ হাসান, বিপিএম, পিপিএম, জেলা পুলিশ সুপার মো. আনিসুর রহমান, বিপিএম, পিপিএম (বার), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. মনিরুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হোসনে আরা বেগম বিনা, ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ্ মো. মঞ্জুর কাদের, মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ্ নিজাম, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম সাইফুল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক এম শওকত আলী প্রমুখ৷