ওয়ান-ইলেভেনের বিতর্কিত ব্যারিস্টার মঈনুলই নাটের গুরু!

রাজনৈতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ): জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া ভেঙ্গে গেছে। শেষ মুহূর্তে কেন অধ্যাপক বদরুদ্দোজা চৌধুরীকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে বাদ দেওয়া হলো? ড. কামাল হোসেনের বাসায় কেউ থাকলো না কেন? এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে পাওয়া গেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, জাতীয় ঐক্যের ভাঙনের নাটের গুরু ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন। ওয়ান-ইলেভেনে বিতর্কিত এই উপদেষ্টার তৎপরতাতেই অধ্যাপক বি. চৌধুরীকে গলাধাক্কা দেওয়া হয়। অধ্যাপক বি. চৌধুরী থাকলে ব্যারিস্টার মঈনুলের ভূমিকা জোটে থাকে না, এজন্যই তিনি এই কাণ্ড করেছেন।

গতকাল সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ড. কামাল হোসেনের বাসায় যান ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেন। সেখান থেকে তাঁকে রীতিমতো উঠিয়ে নিয়ে যান, মতিঝিলের চেম্বারে। টেলিফোনে মির্জা ফখরুলকেও আসতে বলেন। মির্জা ফখরুলের মাধ্যমে আ. স. ম আবদুর রব এবং মান্নাকেও ডাকানো হয়। ব্যারিস্টার মঈনুল ড. কামালকে একক নেতৃত্বের লোভ দেখান।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, অধ্যাপক বি. চৌধুরীকে অপমান করে এ থেকে দূরে রাখাও ছিল ব্যারিস্টার মঈনুলেরই আইডিয়া। একটি সূত্র বলছে, এখন এখানে জামাতসহ সব দক্ষিণপন্থী দলগুলো অবাধে ঢুকে পরবে।

বিশ্লেষন প্রতিবেদনঃ বাংলা ইনসাইডার হতে সংগৃহীত