উদ্বোধনের অপেক্ষায় মতলব উত্তরে শিল্পকলা একাডেমি 

মো. দ্বীন ইসলাম, মতলব উত্তর (চাঁদপুর): মতলব উত্তর উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি ভবনের নির্মান কাজ সম্পন্ন। এ মাসের শেষের দিকেই আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন। চাঁদপুর জেলায় এই প্রথম উপজেলা পর্যায়ে অত্যাধুনিক শিল্পকলা একাডেমি ভবন। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম এমপি’র উন্নয়নের অংশ ও তাঁর প্রচেষ্টায় নির্মাণ হয়েছে এই আধুনিক শিল্পকলা একাডেমি ভবন।
ছেংগারচর পৌরসভা’র কাছাকাছি গজরা ইউনিয়নের গজরা বাজারের পাশে (গজরা বাজারের পশ্চিম পাশে) ২০১৬ সালের ৫ জুন মতলব উত্তর উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। শুরুতে নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছিলো ১ কোটি ৫৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স সুমি এন্টারপ্রাইজ এই ভবন নির্মাণ করছে।
উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) এনামুল হক জানান, নির্মাণ কাজ শেষ। এখন আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের অপেক্ষা। মতলব উত্তর উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি ভবনে তৃণমূল পর্যায়ে শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতির চর্চা এবং প্রশিক্ষণ প্রদানের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে।
এ ভবনটি ৫শ’ আসন বিশিষ্ট। আরো রয়েছে মুক্তমঞ্চ। ভবন এলাকায় অন্যান্য বিনোদন হিসেবে মঞ্চের সাথে রয়েছে জলের ফোয়ারা, বাগান এবং মানুষের চলাফেরা করার মতো সুযোগ সুবিধাদি। খোঁজ খবর মতে এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য হচ্ছে, বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনায় উপজেলায় সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড বিস্তৃতির লক্ষ্যে উপজেলা পর্যায়ে শিল্পকলা একাডেমি ভবন ও মঞ্চ নির্মাণ করা হচ্ছে। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের এ উদ্দেশ্যের আলোকে মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে।
জাতীয় পর্যায়ে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সঙ্গে সমন্বয় রেখে স্থানীয়ভাবে শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতির বিকাশ, চর্চা, প্রচার, উন্নয়ন ও সংরক্ষণ এবং জনগণের মাঝে তা তুলে ধরার জন্যই এ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।
এ ব্যপারে মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ বলেন, তৃৃণমূলে সংস্কৃতি বিকাশের জন্যেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি ভবন নির্মিত হবে।

এ খবর পেয়ে আমাদের নেতা মতলবের উন্নয়নের রূপকার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপি’র প্রচেষ্টায় আমরা প্রথমেই উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি ভবন নির্মাণের অনুমোদন ও বরাদ্দ পেয়ে যাই। এ শিল্পকলা একাডেমীর মাধ্যমে গ্রাম পর্যায়ে নতুন প্রজন্ম তাদের মেধা বিকাশের সুযোগ পাবে।

উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির সভাপতি ও মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার বলেন, শিল্পকলা একাডেমির কার্যক্রম জেলা হতে উপজেলা পর্যায়ে বিস্তৃত হয়েছে। উপজেলা পর্যায়ে বিগতদিনে ভালো মিলনায়তন, মুক্তমঞ্চ ও অন্যান্য অবকাঠামোগত সুযোগ-সুবিধাদি না থাকার কারণে সংস্কৃতি চর্চা পিছিয়ে ছিলো। সংস্কৃতি চর্চায় এখন আমাদের এগিয়ে যাবার পালা।
স্থানীয় সাংসদ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া ভীরবিক্রম এ মাসের শেষের দিকেই শিল্পকলা একাডেমীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বলে জানা গেছে।