কদম রসুল দরবারে মিলাদে দাওয়াত দিলেন মেয়র আইভি

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্কঃ  বন্দরবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন শহরের সাথে বন্দরে সেতুবন্ধরন তৈরী হবে। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) ৫নং গুদারাঘাট হতে বন্দরের একরামপুর ঘাট পর্যন্ত শীতলক্ষ্যা নদীর উপর ৫৭৯ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয়ে কদম রসুল সেতু নির্মাণ করা হবে।

মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রকল্পটির অনুমোদন দেয়া হয়।

সভায় অংশগ্রহণ করেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। তাঁর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বন্দরবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন বাস্তবে রূপান্তরিত হতে যাচ্ছে।

মেয়র আইভী তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় নগরবাসীর উদ্দেশ্যে জানান, স্বাধীনতার এতো বছর পরে আমরা একটি সেতু পেতে যাচ্ছি। এটা আমাদের জন্য খুবই আনন্দের ব্যাপার। মানুষের জন্য এটি আশীর্বাদ স্বরুপ। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জানাই।

পাশাপাশি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী তার প্রতিও সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই।সেতুর প্রকল্প কাজটি পাশ হওয়ায় আমি মনে করি এটা আমাদের জন্য খুবই আনন্দের দিন।৭ বছরের প্রচেষ্টায় আমি আমার কথা রাখতে পেরেছি।

বন্দরবাসীর কাছেও আমি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি একারণে যে উনারা সব সময় আমাকে এ বিষয়টি মনে করিয়ে দিয়েছেন। এ প্রকল্পটি পাশ হয়েছে এটিই আমাদের কাছে অনেক বড় বিষয়।

খুশির এই সংবাদে নগরবাসীকে দাওয়াত দিয়েছেন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। বুধবার (১০ অক্টোবর) বাদ আছর বন্দরের কদম রসুল দরগাহে মিলাদ ও মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। শহর ও বন্দরবাসীকে মিলাদ মাহফিলে শরীক হওয়ার আহবান জানিয়েছেন।

একনেকে কদম রসুল সেতু প্রকল্প পাশ হওয়ায় মহান আল্লাহ পাকের শুকরিয়া আদায় করার লক্ষে বন্দরে ঐতিহাসিক কদম রসুল দরগাহ শরীফ জিয়ারত করবেন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী। বুধবার বিকেলে বাদ আছর কদম মোবারকের সামনে অনুষ্ঠিত মিলাদ ও মাহফিলে অংশগ্রহণ করবেন মেয়র।