মিয়ানমারের মানচিত্রে সেন্টমার্টিন! বাংলাদেশের প্রতিবাদ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ):  মিয়ানমারের মানচিত্রে প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনকে দেখানোয় দেশটির রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে বাংলাদেশ। এ ঘটনার জোরালো প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের তলবে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত উ লুইন ও দুপুর দুপুর ১টায় মন্ত্রণালয়ে আসেন। তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (সমুদ্র বিষয়ক) অবসরপ্রাপ্ত নৌ কর্মকর্তা মো. খুরশিদ আলমের কক্ষে প্রবেশ করেন। সেখান থেকে তিনি এক ঘণ্টা পর বেরিয়ে আসেন। বেরিয়ে আসার সময় গণমাধ্যমকর্মীরা তাকে ঘিরে ধরলেও তিনি কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

জানা গেছে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে রাষ্ট্রদূতকে তলব করে এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে একটি কূটনৈতিক চিঠিও দিয়েছে বাংলাদেশ। রাষ্ট্রদূত উপস্থিত হলে তাকে প্রতিবাদপত্র ধরিয়ে দেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব অবসরপ্রাপ্ত রিয়ার এডমিরাল খুরশিদ আলম।

কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত উ লুইন ও’কে ডেকে এনে বলা হয়, মিয়ানমার সরকার গায়ে পড়ে ঝামেলা করতে চাচ্ছে। মিয়ানমার ইচ্ছাকৃতভাবে বাংলাদেশের সেন্ট মার্টিনের কিছু অংশ নিজেদের বলে বৈশ্বিক অঙ্গনে প্রচার করছে, যা খুবই আপত্তিকর। মিয়ানমার যদি এমন আপত্তিজনক কাজ চালিয়ে যেতে থাকে তবে বাংলাদেশ উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে।

এ সময় রাষ্ট্রদূত উ লুইন ও’র হাতে একটি কূটনৈতিক চিঠি ধরিয়ে দেওয়া হয়। যাতে সেন্টমার্টিন যে বাংলাদেশের অংশ তার পূঙ্খানুপুঙ্খ প্রমাণ রয়েছে। পাশাপাশি ওই চিঠিতে মিয়ানমারের এমন আপত্তিকর কাজের জবাবও চাওয়া হয়।