ফতুল্লায় ফেনসিডিলসহ আ‘লীগ নেতার ছেলে ও ড্রাইভার গ্রেফতার

প্রেসবিজ্ঞপ্তিঃ   নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থেকে ফেন্সিডিলসহ আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে ও ব্যক্তিগত গাড়ির চালককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ফতুল্লার ডিআইটি মাঠ এলাকার একটি গ্যারেজ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, সাব্বির আহমেদ হৃদয় (২৬) এবং  মোঃ হাবিব (৩০)।

এদের মধ্যে সাব্বির আহমেদ হৃদয় ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ শওকত আলীর ছেলে ও মোঃ হাবিব তাদের গাড়ির চালক। র‌্যাব গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে ১৯ বোতল ফেন্সিডিলসহ ৩টি মোবাইল সেট ও নগদ ১৬০ টাকা উদ্ধার করেছে।

র‌্যাব-১১ সিপিএসসি নারায়ণগঞ্জ ক্যাম্পের সহকারি পরিচালক ও সহকারি পুলিশ সুপার বাবুল আখতার স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ফতুল্লার ডিআইটি মাঠের একটি গ্যারেজে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব তাদের ১৯ বোতল ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার করে। উদ্ধার করা ফেন্সিডিলের বাজার মূল্য ৩৮ হাজার টাকা।

র‌্যাবের দাবি,গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন  যাবত মাদক ব্যবসায়ের সাথে জড়িত। তাদের বিরুদ্ধে ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ঘটনার বিষয়ে ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বক্তাবলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ শওকত আলী গনমাধ্যমকে  বলেন, নিশ্চই আমার ছেলের কোন অপরাধ রয়েছে। তা না হলে তো তাকে র‌্যাব ধরে নিয়ে যায়নি। আমার ছেলের যে এতটা অধঃপতন হয়েছে সে বিষয়ে আমার কিছুই জানার ছিল না। এ ঘটনার মধ্য দিয়ে আমার চোখ খুলে গেলে।

তিনি বলেন, আমি আমার ছেলেকে নিরপরাধ বলবো না। তবে এর সঙ্গে তার ব্যক্তিগত গাড়ির চালক জড়িত থাকতে পারে বলে তিনি ধারণা করছেন। কারণ হাবিবকে তিনি মাত্র ২ মাস আগে কাজে রেখেছেন। গতকাল দুপুরে হাবিবআমাকে বক্তাবলীতে নামিয়ে দিয়ে বাড়িতে কাজ আছে বলে ছুটি চায়। আমি তাকে ছুটি দেই। পরে শুনি সে দুপুরে আমার ছেলে হৃদয়কে সঙ্গে নিয়ে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। এর কিছু সময় পরেই শুনি র‌্যাব তাদের ফেন্সিডিলসহ ধরে নিয়ে গেছে।