না‘গঞ্জ পুলিশ সুপারের মতবিনিময়ে আসেনি প্রেসক্লাবের সাংবাদিকেরা !

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্কঃ  মাদক ও জঙ্গি নির্মূলে জেলার সাংবাদিকদের সাথে পুলিশ সুপার মো. আনিসুর রহমান বিপিএম, পিপিএম (বার) আয়োজিত মতবিনিময় সভায়  যোগ দেয়নি নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের ৬৭ ও নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের ৩৫ সদস্য। তবে বিভিন্ন গনমাধ্যমের সাংবাদিকদের একাংশ এতে অংশ নেন।  রবিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় জেলা পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভায়  পুলিশ সুপার বলেন, আজকের মতবিনিময় সভা এটি মাদক ও জঙ্গীবাদের উপর। আপনারা জানেন যে, মাদকের বিষয়ে আমরা জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করছি। মাদক ও জঙ্গীবাদের সাথে কোন আপোষ নয়। সে যেই হোক না কেন। মাদকের সাথে যদি আমার ডিপার্টমেন্টের কেউ জড়িত থাকে তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে সবার আগে ব্যবস্থা নেবো আমি।

মতবিনিময় সভায় পুলিশের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম ও সদর মডেল থানার ওসি কামরুল ইসলাম। অন্যদিকে গণমাধ্যম থেকে উপস্থিত ছিলেন, ইত্তেফাকের জেলা সংবাদদাতা হাবিবুর রহমান বাদুল, কালের কন্ঠের জেলা প্রতিনিধি দীলিপ কুমার মন্ডল, যুগান্তরের জেলা প্রতিনিধি রাজু আহমেদ, আলোকিত বাংলাদেশের জেলা প্রতিনিধি শরীফ সুমন, দৈনিক নারায়ণগঞ্জের আলোর সম্পাদক কমল খান, দৈনিক অগ্রবানীর সম্পাদক হারুনুর রশিদ স্বপন চৌধুরী, অনলাইন পোর্টাল লাইভ নারায়ণগঞ্জের প্রকাশক মো. কামাল হোসেন, প্রেস নারায়ণগঞ্জের প্রকাশক মো. ফখরুল ইসলাম, দৈনিক ইয়াদের সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, দৈনিক আজকালের খবরের জেলা প্রতিনিধি মামুন মিয়া প্রমুখ।

অপরদিকে  মতবিনিময় সভায় অনুপস্থিত নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাব ও সাংবাদিক ইউনিয়ন সাংবাদিক নেতারা জানিয়েছেন, তারা আজকের মতবিনিময় সভা বয়কট করেছেন। পেশাগত সাংবাদিকরা তাদের পেশাগত দায়িত্ব অক্ষুন্ন রাখতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এ ব্যাপারে নারায়নগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারনসম্পাদক শরীফউদ্দিন সবুজ জানান, বর্তমান এসপি এ জেলায় যোগদানের পর থেকে পেশাগত সাংবাদিকরা তথ্য সংগ্রহে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতা পাচ্ছেন না। জেলার প্রতিটি থানা থেকে পুলিশ ফাড়ির কর্মকর্তাদের কাছে ঘটে যাওয়া কোন ঘটনার অফিসিয়াল বক্তব্য জানতে চাইলে সাফ জানিয়ে দেয়া হচ্ছে উর্ধতন কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলতে। কিন্তু এসপির সরকারী ফোনে কল দিলেও তা রিসিভ করা হচ্ছে না। আবার কখনো কখনো বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। ফলে সাংবাদিকরা সময়মত তথ্য সংগ্রহ করতে না পারায় পেশাগত দায়িত্ব পালনে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়েছে।

এ ছাড়াও এসপি আনিসুর রহমান যোগদানের পর নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের কর্মরত সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করতে এসপি অফিস থেকে সময় নির্ধারন করা হলেও আগের দিন বিকালে হঠাৎ করে মতবিনিময় সভাটি স্থগিত করা হয়। এটাও পেশাদার সাংবাদিকদের ক্ষোভের কারন। তারা মনে করে এতে তাদের পেশাগত সম্মান ক্ষুন্ন হয়েছে।