স্বপ্ন ছোঁয়ার ফাইনালে ভারতের মুখোমুখি মাশরাফি বাহিনী

ক্রীড়া ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ):  এশিয়া কাপ শুরুর আগে বাংলাদেশকে কেউই তালিকায় রাখেনি। তবে একজন বাংলাদেশকে নিজের তালিকায় রেখেছিলেন। তিনি হলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তী ক্রিকেটার জহির আব্বাস। একেই হয়তো বলে পাকা জহুরী। তা না হলে আর কী। এশিয়া কাপ শুরুর আগে সবাই যেখানে পাকিস্তানকে ফেভারিটের তকমা দিলেন সেখানে তিনি বাংলাদেশের হাতেই শিরোপা দেখেছিলেন। তবে শিরোপা উচিয়ে ধরতে পেরেছে কিনা তা সময়ই বলে দেবে। কিন্তু তিনি যে বাংলাদেশকে সম্ভাব্য চ্যাম্পিয়ন হিসেবে দেখেছেন এটাতেই কম কিসে?
১৯৯৭ সালে সবশেষ বহুজাতিক কোনও টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। এরপর ২১ বছর পেরিয়ে গেছে কিন্তু শিরোপা অধরা থেকে গেছে। এরপর ২০০৯, ২০১২ ও ২০১৬ সালে সেই সুযোগ এসেছিল কিন্তু শেষ পর্যন্ত কান্নাই সাক্ষী হয়ে রইলো। তবে সবচেয়ে বড় সুযোগ নষ্ট করেছিল ২০১২ সালের এশিয়া কাপের ফাইনালে। পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ পর্যন্ত দুই রানে পরাজিত হয়েছিল বাংলাদেশ। শিরোপা হারিয়ে মাঠে সেদিন অঝোর ধারায় কেঁদেছিলেন বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা। যে কান্না আজও চোখে ভাসে। তবে কি আজও আবার কাঁদতে হবে বাংলাদেশকে?
আজকের ফাইনাল নিয়ে বহুজাতিক টুর্নামেন্টে তৃতীয়বারের মতো ভারতের সামনে বাংলাদেশ। প্রথমবার ২০১৬ সালে এশিয়া কাপের টি-টোয়েন্টি ভার্সনে ও দ্বিতীয়বার ২০১৮ সালের নিদাহাস ট্রফিতে। এশিয়া কাপের টি-টোয়েন্টির ভার্সনে বাংলাদেশ কোনভাবেই ম্যাচে ছিল না। ভারত একচেটিয়া খেলে ম্যাচটি ৮ উইকেটে জিতে নেয়। কিন্তু নিদাহাস ট্রফির ফাইনাল সেটা কোনভাবেই ভুলে যাবার নয়। ওভারের শেষ বলে দীনেশ কার্তিকের ছক্কায় ম্যাচটি অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে হেরে যায় বাংলাদেশ।
তাই তপ্ত মরুদ্যানে ভারতের বুকে থাবা বসানোর আরও একটি সুযোগ পেয়েছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে পাঁচটায়। এই ম্যাচ সামনে রেখে সকলের মনে একটাই প্রশ্ন যে, এবার শিরোপার আক্ষেপ ঘুচবে তো?
ছয়টি দলের অংশগ্রহণে শুরু হয় এবারের এশিয়া কাপ। শ্রীলঙ্কাকে ১৩৭ রানে হারানোর মাধ্যমে নিজেদের মিশন শুরু করে বাংলাদেশ। এরপর আফগানিস্তান ও ভারতের কাছে পরাজয়বরণ করতে হয়। কিন্তু সুপার ফোরের দ্বিতীয় ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে শেষ বলে জয় এবং শেষ ম্যাচে পাকিস্তানকে ৩৭ রানে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে টাইগাররা।
বাংলাদেশের পুরুষ ক্রিকেট দল কোনও শিরোপা না পেলেও নারী ক্রিকেট দল ঠিকই ভারতকে হারিয়ে এশিয়া কাপের শিরোপা ঘরে এনেছে। এবার পালা পুরুষ দলের। নারী ক্রিকেটে এশিয়ার মুকুট বাংলাদেশের কাছে এবার পুরুষ ক্রিকেটের মুকুটও ছিনিয়ে আনার দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ। মাশরাফি, মুশফিক, মাহমুদুল্লারা পারবে কী সেই প্রত্যাশা পূরণ করতে?