ডিপিডিসি‘র কোনো কাজে কোন দালাল ধরবেন না- প্রধান প্রকৌশলী

স্টাফ রিপোর্টার (আজকের নারায়নগঞ্জ) : ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (ডিপিডিসি) কোনো কাজে নগদ লেনদেন হয় না। ডিমান্ড নোট, বিলসহ অন্যান্য সকল কিছু জন্য নির্ধারিত অর্থ ব্যাংকের মাধ্যমে জমা নেওয়া হয়। তাই কারো প্ররোচনায় অবৈধভাবে নগদ অর্থ লেনদেন করবেন না, কোন দালাল ধরবেন না। সমস্যা থাকলে সরাসরি আমাদের কাছে আসুন।

নগরীর কিল্লারপুল এলাকায় বুধবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ডিপিডিসির নারায়ণগঞ্জ পশ্চিম জোনের উদ্যোগে আয়োজিত গণশুনানী (প্রথম পর্ব) অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংস্থাটির প্রধান প্রকৌশলী (দক্ষিণ) দেওয়ান আবুল কালাম আজাদ এসব কথা বলেন।

ডিপিডিসির নারায়ণগঞ্জ এনওসিএস পশ্চিমের নির্বাহী প্রকৌশলী আনিসুর রহমানের সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী শেখ আবেদ আলীর সঞ্চালনায় গণশুনানী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ডিপিডিসির নারায়ণগঞ্জ নেটওয়ার্ক অপারেশন অ্যান্ড কাস্টমার সার্ভিসের (এনওসিএস) তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সালেক মাহমুদ।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহকারী প্রকৌশলী মজিবুর রহমান ভূঁইয়া ও মসিদুল হক, উপ সহকারী প্রকৌশলী তৌফিক আহম্মেদ এবং সিবিএ সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম হাওলাদার।

এ সময় গ্রাহকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জামতলা পঞ্চায়েতের সহ-সভাপতি গাজী মোখলেসুর রহমান ময়না, জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ দিল মোহাম্মদ দিলুসহ আরো অনেকে প্রমুখ।

প্রধান প্রকৌশলী (দক্ষিণ) দেওয়ান আবুল কালাম আজাদ গ্রাহকদের নানাবিধ সমস্যার কথা শোনেন এবং তাৎক্ষণিক সমাধানসহ বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দিয়ে আরো বলেন, আমরা শুদ্ধ মানুষ নই আমাদের ভুল-ত্রুটি থাকতে পারে।

তবে মিটার রিডিং এর অতিরিক্ত বিল কিংবা জরিমানার বিল সংক্রান্ত বিষয়ে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আসলে সেটার দ্রুত সমাধান সম্ভব।

তিনি আরো জানান, বিদ্যুৎ বিল যাতে সময় শেষ হওয়ার এক সপ্তাহ পূর্বেই সব গ্রাহক পেতে পারে এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এছাড়াও তিনি অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগধারীদের সম্পর্কে তথ্য দেওয়ারও আহবান জানিয়ে বলেন, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা গ্যারেজ গুলোতে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগের বিষয়ে যৌথ অভিযান চলছে। এবিষয়ে আপনারা সহযোগীতা করবেন বলে আশা রাখি।