পাকিস্তানকে হারিয়ে ফাইনালে খেলতে চায় রোডস

 ক্রীড়া ডেস্ক (আজকের নারায়নগঞ্জ): এশিয়া কাপে গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে দুর্দান্ত শুরু করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু আফগানিস্তানের সঙ্গে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বড় ব্যবধানে হেরে মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়ে টাইগাররা।
আফগানদের সঙ্গে হেরে পরের দিনই আবার খেলতে হয় ভারতের বিপক্ষে। এই ম্যাচেও বাজে ভাবে হারে স্টিভ রোডসের শিষ্যরা।
টানা দুই হারে যখন বিধ্বস্ত একটা দলে পরিণত হয় তখনই আবার ঘুরে দাঁড়ায় আফগানদের হারিয়ে। সুপার ফোর পর্বের খেলায় ৩ রানের জয়ে স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখে ফাইনালে খেলার।
এখন বাধা শুধু পাকিস্তান।  বুধবার বিকেলে টাইগাররা মুখোমুখি হবে পাকিস্তানের। সুপার ফোরের খেলায় পাকিস্তানও আফগানদের হারায় তবে হেরে যায় ভারতের কাছে। সেটিও আবার ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে। তাই হারের ক্ষত নিয়ে পাকিস্তানকে নামতে হবে ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে।
এদিকে আফগানিস্তানকে হারিয়ে মানসিক ও শারীরিকভাবে উৎফুল্ল বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। টাইগার কোচ স্টিভ রোডস বলছেন, এটাকেই পুঁজি করেই পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামতে হবে। পাকিস্তান ম্যাচকে সামনে রেখে আজ মঙ্গলবার স্টিভ কথা বলেন গণমাধ্যমের সঙ্গে।
স্টিভ বলেন, দল হিসেবে পাকিস্তান বেশ শক্তিশালী। আমরাও তৈরি চ্যালেঞ্জ নিতে। মাশরাফিরা যদি নিজেদের সেরাটা দিতে পারে তবে ফাইনালে জায়গা করে নেয়া কঠিন হবে না বাংলাদেশের জন্য।
স্টিভ আরও বলেন, এটা এখন অঘোষিত সেমিফাইনালে গিয়ে ঠেকেছে। বিপক্ষ দলের প্রতি আমার পূর্ণ শ্রদ্ধা আছে। আমার ছেলেরাও নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়েছে গত ম্যাচে। আমি বিশ্বাস করি আমরাই জিতবো এই ম্যাচে এবং ভারতের সঙ্গে ফাইনালে খেলবো।
সবশেষ ম্যাচে মুস্তাফিজুর রহমান সহ অনেকেই শারীরিক দূর্বল হয়ে পড়েছিল গরম আবহাওয়ায়। আগের রাতে দলের সঙ্গে যোগ দিয়ে পরের দিন দুপুরে মাঠে নামতে হয়েছিল ইমরুল কায়েসকে। ছিল টানা জার্নির ধকলও।
এসব নিয়ে স্টিভ বলেন, টানা জার্নির ধকল থাকলেও সবাই শারীরিক ও মানসিক ভাবে বেশ ছন্দে আছে। মুস্তাফিজ, কায়েস, মাশরাফিরা জানে কি করতে হবে এই সময়ে। আশা করি ভালো একটা ম্যাচ হবে।