২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার মামলায় রায় ১০ অক্টোবর

আইন-আদালত(আজকের নারায়নগঞ্জ):  বহুল আলোচিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলার রায় ঘোষণা করা হবে আগামী ১০ অক্টোবর।

আজ মঙ্গলবার ঢাকার ১ নং অস্থায়ী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নুর উদ্দিন এ দিন ধার্য করেন।

সোমবার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা আদালতে তাদের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করেন। আজ বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে আদালতের কার্যক্রম শুরুর পর আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট এসএম শাহজাহান আদালতে তাদের যুক্তিতর্ক তুলে ধরেন।

রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, সাবেক প্রতিমন্ত্রী আব্দুস সালাম পিন্টুসহ ২৩ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। এছাড়া জামিনে থাকা খালেদা জিয়ার ভাগ্নে লে. কমান্ডার (অব.) সাইফুল ইসলাম ডিউক, সাবেক আইজিপি মো. আশরাফুল হুদা, শহিদুল হক ও খোদা বক্স চৌধুরীসহ ৮ আসামিও হাজির ছিলেন। এসময় আদালত তাদের জামিন বাতিল করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

২১ আগস্টের হামলার ঘটনায় পৃথক মামলায় মোট আসামির সংখ্যা ৫২ জন। এর মধ্যে তিনজন আসামির অন্য মামলায় মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ায় তাদের মামলা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তারা হলেন- জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ, জঙ্গি নেতা মুফতি হান্নান ও শরীফ সাহেদুল আলম বিপুল।

এখন ৪৯ জন আসামির বিচার চলছে। এর মধ্যে বিএনপি নেতা তারেক রহমান, হারিছ চৌধুরীসহ ১৮ জন পলাতক।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশে গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। ওই হামলায় আওয়ামী লীগের তৎকালীন মহিলাবিষয়ক সম্পাদিকা ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের সহধর্মিণী আইভি রহমানসহ ২৪ জন প্রাণ হারান।

অল্পের জন্য বেঁচে যান আওয়ামী লীগ সভাপতি ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ হামলায় শতাধিক নেতাকর্মী আহত হন।