৩২ মাদক ব্যবসায়ীর তালিকা, ধরিয়ে দিলেই পুরস্কার’

 

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্কঃ  নারায়ণগঞ্জের ৩২ জন মাদক ব্যাবসায়ীর তালিকা প্রকাশ করে এদের প্রত্যেককে ধরিয়ে দেয়ার উপর আর্থিক পুরষ্কার ঘোষণা করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান। ছবিসহ উক্ত মাদক ব্যাবসায়ীদের তালিকা পোস্টার আকারে প্রকাশ করা হয়েছে।

সোমবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে অনুষ্ঠিত মাদক, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশে এ তালিকা প্রকাশ করা হয়।

তালিকা প্রকাশকালে নারায়ণঞ্জ পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান বলেন, ‘এরা (মাদক ব্যবসায়ী ও গডফাদারেরা) ৩২ বা ৪০ জনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়। এদের সংখ্যা আরও বেশি। আমাদের এই তালিকা তৈরির প্রক্রিয়া ধারাবাহিকভাবে চলমান থাকবে। আমরা নারায়ণগঞ্জের প্রতিটি নাগরিকে সহায়তা আশা করছি। আপনারা তথ্য দিন আমরা ব্যবস্থা নিবো। তথ্য প্রদাণকারীর পরিচয় গোপন রাখা হবে পাশাপাশি তাকে পুরষ্কৃত করা হবে আমাদের পক্ষ থেকে। আমরা নারায়ণগঞ্জকে মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত করতে চাই।’

সদর থানার ১৬ জন মাদক ব্যবসায়ী ও গডফাদারের তালিকা

নারায়ণগঞ্জ শহরের ২নং বাবুরাইল এলাকার কালাচান মিয়ার ছেলে মো: বাদশা (৪০), পাইকপাড়া এলাকার মৃত মুরাদ মিয়ার ছেলে মো: শহিদুল ইসলাম উরফে রুমান (৪৮), ১৯২ নং দেওভোগ পাক্কা রোড এলাকার মৃত সাদেক আলীর ছেলে বাদল ওরফে বাদলা ওরফে মকবুল হোসেন (৫১), সৈয়দপুর এলাকার শামসুদ্দিনের ছেলে কালা মিয়া ওরফে হামিদ ওরফে কালাই (৩৮), বেপারীপাড়া এলাকার মৃত মুনু মিয়ার ছেলে মো: রানা (৩৫), দক্ষিণ রেলি বাগান এলাকার মৃত শহিদুল ইসলামের ছেলে মো: শেখ ফরিদ (২৭), নারায়ণগঞ্জ থানা পুকুর পাড় রয়েল ট্যংক রোড রেলি বাগানের মৃত অর্জুন চন্দ্র পালের ছেলে কার্তিক চন্দ্র পাল (২৮), দেওভোগ আখড়া মসজিদ হোল্ডিং নং ৫২ এলএন রোড এলাকার মৃত কালাচাঁন মিয়ার ছেলে দিপু (৩৬), ২নং রেল গেইট বিবি রোড এলাকার হারুন রশিদের ছেলে সোয়াদ হোসেন ওরফে বান্টি (২৫), পাইকপাড়া এলাকার জয়নাল আবেদিনের ছেলে মহিউদ্দিন (৩৫), দেওভোগ পানির ট্যাংকি এলাকার মৃত এনায়েত আলির ছেলে আওলাদ (৩২), পাইকপাড়া এলাকার সালাউদ্দিনের ছেলে রাজু আহমেদ (৩৫), সৈয়দপুর আল-আমিন নগরের মৃত খালেক বেপারীর ছেলে জাবেদ বেপারী (৪০), দক্ষিণ রেলী বাগানের মৃত শহিদুল ইসলামের ছেলে মো: বাদল (৩৭), রেলী বাগানের ওয়াজউদ্দিনের ছেলে সালাউদ্দীন (৩১), শহরের মেট্রো হল সংলগ্ন কুমুদিনী বাগানের মৃত বাবুল মিয়ার ছেলে মাসুদ ওরফে সিআডি মাসুদ।

প্রথম ৮ জনকে ধরিয়ে দিতে পারলে প্রত্যেকের জন্য ১০ হাজার ও পরবর্তী ৮ জনকে ধরিয়ে দিতে পারলে প্রত্যেকের জন্য ৫ হাজার করে আর্থিক পুরষ্কার ঘোষণা করা হয়েছে

ফতুল্লা থানার ১৬ মাদক ব্যবসায়ী ও গডফাদারদের তালিকা

দাপা মসজিদ এলাকার মৃত মতলব কাজীর ছেলে রিপন কাজী, মাসদাইর গুদারা ঘাট এলাকার রফিকুল ইসলাম ভেন্ডারের ছেলে নাদিম (৩০), দাপা ইদ্রাকপুরের হাবিবুর রহমানের ছেলে মন্টু মিয়া (৪২), একই এলাকার শাহআলমের স্ত্রী পারভীন ওরফে নাইট পারভীন, খোচপাড়ার মৃত ফজলুল হকের ছেলে টিকি মরা লিটন (৪৫), রাম নগরের মৃত সাবেদ আলির ছেলে রহিম বাদশা (৪৮), মাসদাইরের মজিবরের ছেলে হিটলার (৪৮), একই এলাকার গোলাম মোস্তফা রনির স্ত্রী পারুল ওরফে পারুলী, দাপা ইদ্রাকপুরের সাইফুল ইসলামের ছেলে লিটন ওরফে সাইকেল লিটন (৪৮), আব্দুল রশিদ মিস্ত্রির ছেলে মানিক রতন, মাসদাইরের ফজলুল হকের ছেলে হান্ড্রেড নাসির, ফাজিলপুরের সামসুল হকের ছেলে সানি, দাপা মসজিদের ছেলে মতলব কাজির ছেলে সেন্টু কাজি (৩৪), দাপা মসজিদ এলাকার আলী নূর বেপারীর ছেলে উজ্জল, দাপা মসজিদ এলাকার মৃত সেকান্দারের লতিফ (৩৪), দাপা ইদ্রাকপুরের মৃত সামসুল হকের ছেলে লিপু ওরফে ডাকাত লিপু (৩২)। আর তালিকার প্রথম ৮ জনকে ধরিয়ে দিতে পারলে প্রত্যেকের জন্য ১০ হাজার ও পরবর্তী ৮ জনকে ধরিয়ে দিতে পারলে প্রত্যেকের জন্য ৫ হাজার করে আর্থিক পুরষ্কার ঘোষণা করা হয়েছে।