মুক্তি সম্ভব না হলে খালেদা ছাড়াই নির্বাচনে বিএনপি!

রাজনৈতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ):  কারাগার থেকে ছাড়ানো সম্ভব না হলে প্রয়োজনে খালেদাকে ছাড়াই নির্ব াচনে যাচ্ছে বিএনপি। এমনি নির্দেশনা দিয়েছেন লন্ডন থেকে তারেক রহমান।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনসহ দেশের বিদ্যমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমানের সঙ্গে বৈঠকে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে এ নির্দেশনা দিয়েছেন বলে সূত্রে জানা গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে জাতিসংঘের সঙ্গে বৈঠক শেষে ফখরুলকে লন্ডনে ডেকে নিয়ে এ বৈঠক করেন তারেক।

বৈঠক সূত্রে আরও জানা গেছে, ২০ দলীয় জোটসহ সরকারের বাইরে থাকা অন্যান্য দলগুলোর সঙ্গে ঐক্যের অগ্রগতি জানতে চেয়েছেন মির্জা ফখরুল। এসময় তিনি ঐক্য গড়ার নির্দেশনা দেন। ঐক্য না হলে ২০ দলের সঙ্গে আসন ভাগাভাগি করে ৩০০ আসনে মনোনয়ন চূড়ান্ত করার নির্দেশনাও দেন।

তারেক রহমান বৈঠকে আরও জানিয়েছেন, আসন্ন নির্বাচন ও মনোনয়ন নিয়ে তিনিও কিছুটা কাজ করছেন। সব ঠিক থাকলে আগামী ডিসেম্বরেই অনুষ্ঠিত হবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। আর এই নির্বাচনকে ঘিরে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমানের সঙ্গে এই বৈঠককে গুরুত্বপূর্ণ বলেও মনে করছেন বিএনপি নেতারা। দলটির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার কারাবন্দি থাকার পর থেকে দলীয় নির্দেশনায় কিছুটা ঘাটতি হলেও এই বৈঠক অনেকটাই পরিবর্তন এনে দেবে বলেও মনে করছেন অনেকেই।

এদিকে বৈঠক শেষে রবিবার বিকালে ঢাকা ফিরেছেন মির্জা ফখরুল। তবে বৈঠকে কি আলাপ হয়েছে এই বিষয়ে এখনও কিছু বলেন নি তিনি।

তবে বৈঠক সূত্র আরও জানা গেছে, খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি ও নির্বাচন প্রসঙ্গেই বেশিরভাগ আলোচনা হয়েছে এই দুই নেতার মধ্যে। নির্বাচনের আগে খালেদা জিয়া কারাগারে থাকলে তাকে ছাড়াই যেন বিএনপি এবার নির্বাচনে অংশ নেয় এমন নির্দেশনাও রয়েছে তারেকের। এসব ইস্যুতে বিএনপি দেশে আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে বলে তারেককে অবগত করেন ফখরুল। পাশাপাশি নির্বাচনের আগ পর্যন্ত, বিশেষ করে তফসিল ঘোষণার পরও সরকারকে চাপের মুখে রাখার জন্য আন্দোলন করার নির্দেশনা দেন তিনি। জাতিসংঘের সহকারী মহাসচিবের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়েও তারেককে অবহিত করেন ফখরুল।

উল্লেখ্য, গত ১৩ সেপ্টেম্বর নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের রাজনীতিবিষয়ক সহকারী মহাসচিব মিরোস্লাভ জেনকার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ফখরুল। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন বিএনপির দুই নেতা তাবিথ আউয়াল ও লন্ডনপ্রবাসী হুমায়ুন কবীর।

গত ১১ সেপ্টেম্বর নিউ ইয়র্কের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেছিলেন মির্জা ফখরুল। জাতিসংঘ থেকে বাংলাদেশে ফেরার পথে লন্ডনে তিনি যাত্রাবিরতি করেন। স্থানীয় সময় শনিবার সকাল ৮টায় লন্ডনে পৌঁছান মির্জা ফখরুল। তারেকের সঙ্গে বৈঠক শেষে ওই দিন রাত ৮টায় ঢাকার পথে রওনা দেন তিনি। এসময় বিমানবন্দরে যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতাকর্মীরা ফখরুলকে বিদায় জানাতে উপস্থিত হয়েছিল। রোববার বিকাল ৫টা ২০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময়) লন্ডন থেকে ঢাকা পৌঁছান তিনি।