ফতুল্লায় রাজমিস্ত্রির রহস্যজনক আত্মহত্যা

ফতুল্লা(আজকের নারায়নগঞ্জ):  ফতুল্লার দক্ষিন শেহাচর লালখা এলাকায় মোসলেহ উদ্দিন (৪৯) নামে এক রাজমিস্ত্রী আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টায় এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাত সাড়ে নয়টায় পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ১০০ শয্যাবিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

বাড়িওয়ালা মোঃ জসিম জানান, সন্ধ্যা ৭টার দিকে মোসলেহ উদ্দিনের ঘরের দরজা দীর্ঘক্ষন বন্ধ ও ভেতরে লাইট জ্বলতে দেখে আমরা দরজায় ধাক্কাধাক্কি করি। বেশ কিছুক্ষন ধরে সাড়া না পাওয়ায় পেছনের জানালার ফাক থেকে তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পাই। এরপরে আমরা পুলিশে খবর দেই। বাড়ির প্রতিবেশীরা জানান, তিনি ঘরে একাই থাকতেন। বিয়ে করেছেন শুনলেও আমরা তার বউকে নিয়ে আসতে দেখিনি। জিজ্ঞেস করলে বলতো বউ তার পরিবারের সঙ্গে খানপুর থাকে।

বাড়ির আরেক ভাড়াটিয়া জানান, কোরবানী ঈদের আগে মোসলেহ উদ্দিন যথেষ্ট ভালো মানুষই ছিল। ঈদের পর থেকে তাকে সর্বদা মন খারাপ করে থাকতে দেখতাম। ঈদের আগে মাঝে মাঝে খানপুর গিয়ে থাকতে দেখলেও ঈদের পড়ে সে আর খানপুর যেত না। ধারনা করা হচ্ছে পরিবারের সাথে কোন সমস্যা থাকতে পারে।

পুলিশ জানায়, তার সঙ্গে থাকা ভোটার আইডি কার্ডেও তার ঠিকানা খানপুর ডন চেম্বার, বাসা নং ১১৯/১ লেখা রয়েছে।

ঘটনাস্থলে আসা ফতুল্লা মডেল থানার এস আই রক্তিম  জানান, আমরা খবর পেয়ে রাত সোয়া নয়টায় উপস্থিত হই এবং দরজা ভেঙ্গে প্রবেশ করি। ভেতরের লাশ পরীক্ষা নিরীক্ষা করে হত্যার আলামত পাওয়া যায়নি। তবে ময়না তদন্তের রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। নিহতের পরিচয় পাওয়া গেলেও তার পরিবারকে পাওয়া যায়নি। কি কারনে আত্মহত্যা করতে পারে তা এখনো রহস্যজনক।