সানজিদাকে ভারতে পতিতালয়ে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগ

বন্দর(আজকের নারায়নগঞ্জ):   সানজিদা (১৩) নামে এক কিশোরীকে রাস্তা থেকে অপহরণের পর ভারতের পতিতা পল্লীতে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে বন্দরের চিহ্নিত আদমপাচারকারী পিতা-পুত্রের বিরুদ্ধে । গত ১৫ আগষ্ট বন্দর রেললাইন এলাকা থেকে ওই কিশোরীকে অপহরণের পর ভারতে বিক্রি করে দেওয়া হয়।

এ ঘটনায় কিশোরী পিতা সালাউদ্দিন মিয়া বাদী হয়ে অপহরন ঘটনার ২৮ দিন অতিবাহিত হওয়ার পর বৃহস্পতিবার দুপুরে আদম পাচারকারি পিতা ও তার ২ পুত্রকে আসামী করে বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের ২নং মাধবপাশা এলাকার দিনমজুর সালাউদ্দিনের কিশোরী মেয়ে সানজিদা আক্তার গত ১৫ আগষ্ট বিকেলে বন্দর রেললাইনস্থ তার বড় বোন রানি বেগমের বাড়িতে বেড়াতে আসে।

ওই সুযোগে আদম পাচারকারি বন্দর ঝাউতলা এলাকার ইয়াছিন ও তার ২ ছেলে জাকির ও মানিক কিশোরী সানজিদার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ভাবে অপহরণ করে ভারতের পতিতা পল্লীতে বিক্রি করে দেয়।

পরে ১৬ আগষ্ট রাত ৮টায় কিশোরী সানজিদা ভারত থেকে + ৯১৮৩৯১৯৩০৯৪৩ নাম্বার থেকে তার বড় বোন রানি বেগমের ব্যবহারকৃত ০১৮৫২৩৪০০৭৫ নাম্বারে ফোনের মাধ্যমে তাকে ভারতে পতিতা পল্লীতে বিক্রি করা হয়েছে বলে জানা। এ সংবাদ পেয়ে কিশোরী পিতা পাচারকারিদের সাথে যোগযোগ করলে তারা তাকে বিভিন্ন হুমকি দামকি প্রদান করে।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনর্চাজ এ,কে,এম শাহীন মন্ডল জানান, এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আমরা অভিযোগ পেয়ে পাচারকারিদের গ্রেপ্তারসহ মেয়েটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।