৩৩ জনকে হত্যার কথা স্বীকার সিরিয়াল কিলার আদিশের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ):  ২০১০ সাল থেকে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রাজ্যে ৩৩ জনকে হত্যার কথা ভোপাল পুলিশের কাছে স্বীকার করে জবানবন্দি দেন আদিশ। এই ঘটনায় ভোপাল পুলিশ ওই অপরাধী চক্রের নয়জনকে আটক করে হাজতে ভরেছে। একই সঙ্গে চক্রটির শিকার হওয়া মানুষদের শনাক্ত করার চেষ্টা করছে।

ভয়ংকর এক সিরিয়াল কিলারকে গত সপ্তাহে আটক করেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশ পুলিশ। এই সিরিয়াল কিলার ৩৩ জন ব্যক্তিকে খুন করার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন। তাঁর নাম আদিশ খামরা (৪৮)। তাঁকে আটকের পর আরেক সিরিয়াল কিলার রমন রাঘবের কথা বেশ চাউর হচ্ছে, যাঁর বিরুদ্ধে ষাটের দশকে ৪২টি হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ ওঠে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ায়  বুধবার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আদিশ খামরার খুনের লক্ষ্যবস্তু ছিল ট্রাকচালক ও তাঁর সহকারীরা। খুনের আগে তিনি ট্রাকচালকদের মদ্যপানের ফাঁদে ফেলতেন। খুনের পর শরীরে থাকা কাপড় খুলে লাশ টুকরা-টুকরা করতেন, যাতে কেউ সেই লাশ শনাক্ত করতে না পারেন। ৩৩ জনকে তিনি খুন করেছেন। এর মধ্যে ৪ সেপ্টেম্বরই হত্যা করেন তিনজনকে। হত্যার পর লাশগুলো তিনি কালভার্টের নিচে কিংবা পাহাড়ি দুর্গম রাস্তায় ফেলে রাখতেন।

পুলিশ সূত্রে আরও জানা যায়, ট্রাকচালক ও সহকারীদের সঙ্গে কৌশলে আদিশ খামরা বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তৈরি করতেন। সেই সম্পর্ক কাজে লাগিয়ে তিনি চালকদের ফাঁদে ফেলতেন। এই ফাঁকে তাঁর লোকজন ট্রাকের মাল লুট করে নেন। পরে মদ বা নেশাজাতীয় দ্রব্য খাইয়ে তাঁদের দুর্বল করে হত্যা করেন।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া