শ্রমিকলীগ নেতা পলাশের মানহানি মামলায় ৩ সাংবাদিকের জামিন

আইন-আদালত(আজকের  নারায়ণগঞ্জ): জাতীয় শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা কাউসার আহমাদ পলাশের দায়ের করা মামলায় স্থায়ী জামিন পেয়েছেন নারায়ণগঞ্জের তিন সাংবাদিক।

মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) নারায়ণগঞ্জের তিনটি পৃথক আদালত তাদের এ জামিন মঞ্জুর করেন। পরবর্তী তারিখে মামলার চার্জ গঠনের দিন ধার্য করা হয়েছে।

জামিনপ্রাপ্ত তিনজন হলেন-ইত্তেফাকের জেলা প্রতিনিধি ও ডান্ডিবার্তার সম্পাদক হাবিবুর রহমান বাদল, সময়ের নারায়ণগঞ্জের সম্পাদক জাবেদ আহমেদ জুয়েল ও যুগান্তর’র ফতুল্লা প্রতিনিধি আলামিন প্রধান।

এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল মোহসীনের আদালতে হাবিবুর রহমান বাদল, আহমেদ হুমায়ূন কবিরের আদালতে জাবেদ আহমেদ জুয়েল ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসানের আদালতে আলামিন প্রধানের ওই শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। তিনটি আদালতেই কাউসার আহমাদ পলাশ উপস্থিত ছিলেন।

হাবিবুর রহমান বাদলের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল, সাবেক সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন খান, সিনিয়র আইনজীবী শাহ্ মাজহারুল ইসলাম, রাকিবুল ইসলাম শিমুল ও সরকার হুমায়ূন কবির প্রমুখ।

হাসান ফেরদৌস জুয়েল বলেন, শুনানীতে আমরা বলেছি বাদী যে পন্থায় মামলাগুলো দায়ের করেছে সেটার কোন ভিত্তি নাই। কারণ মামলার এজাহারে সুস্পষ্ট যে প্রকাশিত সংবাদে বাদীর কোন নাম নাই।

অন্যদিকে বাদীপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট জাকারিয়া হাবিব স্থায়ী জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আগামী ধার্য তারিখে আসামীদের বিরুদ্ধে চার্জ (অভিযোগ) গঠন করা হবে।

প্রসঙ্গ সংবাদ প্রকাশের পর চলতি বছরের ৩ এপ্রিল স্থানীয় দৈনিক ডান্ডিবার্তা ও সময়ের নারায়ণগঞ্জের সম্পাদক হাবিবুর রহমান বাদল ও জাবেদ আহমেদ জুয়েলের বিরুদ্ধে ৫ কোটি টাকার মানহানি ও আল আমিন প্রধানের বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করেন পলাশ।