মামুন,গিয়াস,সাদরিল,ইকবালসহ ৪০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

সিদ্ধিরগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ) : জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ৪০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইন ও বিস্ফোরক আইনে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

রোববার (৯ সেপ্টেম্বর) সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ইসলাম-২ বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় দুজনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- জিয়াউদ্দিন বিজয় (৩৫) ও রমজান ভূঁইয়া (৩৮)। মামলায় আসামিরা হলেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য গিয়াসউদ্দিন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ, নুর উদ্দিন, আলী আহমেদ লালা ব্যাপারী, আলী আকবর হোসেন, নাসিক কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন, কাউন্সিলর জিএম সাদরিল, টি এইচ তোফা, আব্দুল হাই রাজু, তৈয়ব আলী, আখিল উদ্দিন ভূঁইয়া, মাজেদুল ইসলাম, মমতাজ উদ্দিন মন্তু, জুয়েল রানা, মনিরুজ্জামান রবি, মানিক, মোক্তার হোসেনসহ অজ্ঞাত ২১ জন।

মামলায় অভিযোগ আনা হয়, শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাং রোডস্থ গিয়াসউদ্দিনের নির্মানাধীন একতলা ভবনে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ২৫/৪০ জন বিভিন্ন অস্ত্র শস্ত্র ও বিস্ফোরক দ্রব্য নিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করার গোপন বৈঠক করছিল।

এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাবার সময় জিয়া উদ্দিন এবং রমজান ভুইয়া নামে দুজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে ৫টি অবিস্ফোরিত ককটেল, ১০টি বাঁশের লাঠি ও ৮টি কাঠের লাঠি উদ্ধার করা হয়েছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস সাত্তার মিয়া মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।