প্রাপ্তি

– শামসুল হুদা

জীবনে শেষবার কবে প্রাণ খুলে
আনন্দে হেসেছিলাম, আমি জানিনা !
কিছু প্রাপ্তি বুঝি এমনি হয়-
সে হাসতে হাসতে কাঁদায়
আবার কাঁদতে কাঁদতে হাসায়।

আজকের দিনটা আমার জীবনের
তেমনি একটি দিন।
“আমার স্বপ্ন যে সত্যি হলো আজ”
স্বপ্নগুলো যখন এক’পা, দু’পা করে করে
পূর্ণতা’র পথে এগিয়ে যায়!

তখন সে আনন্দে আকাশ বাতাস
উদ্বেলিত হয়-
নেচে উঠে শরীরের প্রতিটি অঙ্গ প্রত্যঙ্গ।
কাঁপন জাগে মনে,
আর, ধমনীতে বইতে থাকে
উষ্ণতার পরশ।

শুষ্ক মরু যেমন একফোঁটা জলকণার আশায়
প্রহর গুনে সুতীব্র দাহনের মাঝে।
আর সেই জলকণা যখন-
ফোঁটা ফোঁটা অশ্রু হয়ে ঝরে পরে মরুর বুকে !
তখন সে আনন্দে গেয়ে উঠে
“আজি ঝরঝর মুখর বাদর দিনে, জানিনে জানিনে”।

মরুর বুকে ফুল ফোটাতে
এলো আবার কাঙ্খিত বরষা
ফুটবে ফুল গাইবে গান
সকল অলি কূল-
বলবোনা কিছু শুধু চেয়ে দেখবো
আমার কাঙ্খিত আরাধিকাকে।
দূর থেকে শুধু আনন্দাশ্রুর বইয়ে দেবো
শুষ্ক মরু উদ্যানে।

‘ফুলে ফুলে ঢলে ঢলে বহে কিবা মৃদুবায়’

সবাই যখন আনন্দে মত্ত আমি না’হয়
ঘরের কোণে চুপটি করে বসে
কল্পনার ফানুস উড়াবো-
আর, কাটিয়ে দেবো আমার সারাবেলা।

আমি যে তাই, যার জীবনে কোনকিছুই
সহজে আসেনা-
আবার যদিওবা আসে, তা ক্ষণিকের জন্য।
‘আমি ধরি ধরি সন্ধান করি
ধরতে গেলে আর মেলেনা’

তবুও আজ যেটুকু পেলাম
তাই নিয়েই কাটিয়ে দেবো বাকি জীবন।