সজীবসহ ছাত্রদলের ১৪ নেতা রিমান্ড শেষে জেলহাজতে

আইন-আদালত(আজকের নারায়নগঞ্জ):   নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানার দায়েরকৃত বিস্ফোরক মামলায় জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম সজীবসহ ১৪ ছাত্রদল নেতাকর্মীর একদিনের রিমান্ড শেষে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে ।

সোমবার ( ৩ সেপ্টেম্বর ) দুপুরে সোনারগাঁও থানা পুলিশ একদিনের পুলিশী রিমান্ড শেষে নারায়ণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত মাহমুদুল মহসিনের আদালতে হাজির করা হলে আদালত আসামিদের জেল হাজতে প্রেরণ করেন ।

এর আগে ( ৩০ আগষ্ট ) নারায়ণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ূন কবিরের আদালতে সজিব সহ ১৪ ছাত্রদল নেতা-কর্মীকে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন পুলিশ । আদালত শুনানি শেষে ১৪ জন কে এক দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন ।

প্রসঙ্গত বুধবার (২৯ আগষ্ট) সকালে ঢাকার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয় সজিবকে। এর আগে মঙ্গলবার রাতে কাঁচপুর ইউনিয়নের সোনাপুর মর্ডাণ হাসপাতালের সামনে থেকে গ্রেফতার করা হয় ১৪ ছাত্রদল নেতাকর্মীকে।

সোনারগাঁ থানা সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (২৮ আগষ্ট) রাতে সোনাগাঁ থানার কাঁচপুর থেকে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে গ্রেফতারকৃত ১৪ জাকারিয়া, সারোয়ার হিমেল, রুহুল আমিন রুবেল, মো: আ: হালিম, মোঃ বিল্লাল হোসেন, মো: ফরহাদ হোসেন, ওমর ফারুক ইকবাল, মো: খোরশেদ আলম, শাহাজ উদ্দিন, আবুল বাশার, মোজ্জাম্মেল হক , কাজী হিমেল, ইউনুস ও সাইদুরসহ ৩৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ২০/৩০ জনকে আসামী করে বিস্ফোরক আইনে মামলা দায়ের করা হয়। সোনারগাঁ থানার মামলা নং ৫৬ তারিখ ২৯-০৮-২০১৮।

মামলার বাকী আসামিরা হলেন মোস্তাফিজুর রহমান ভূইয়া দীপু, মনির হোসেন, খন্দকার আবু জাফর, নজরুল ইসলাম টিটু, শামীম, আমানউল্লাহ আমান, খায়রুল ইসলাম সজীব, হাজী শাহ জাহান মেম্বার, নুরে ইয়াসিন নোবেল, হাজী সেলিম হক, মোমেন খান, আপেল, মজিবুর রহমান, হানিফ, সালাউদ্দিন সালু, হাবিবুর রহমান হবু, বজলুর রহমান, ফয়সাল আহমেদ, কাজী নুরুল, বিল্লালসহ অজ্ঞাত আরো ২০/৩০ জন।