শিরোনামহীন

– মারুফুল ইসলাম

মধ্যাহ্নে যাদের চোখের তারায় আমি উপচে পড়তে দেখেছি বিশ্বাস
পড়ন্ত বিকেলের হেলে পড়া আলোয় চকচক করে ওঠে তাদের হাতে ধরা চাকু
যাদের হাতে তুলে দিয়েছি বিস্তীর্ণ শস্যক্ষেত্রের বর্গা
তারাই ফসলের পরিবর্তে গোলা ভরে রেখে গেছে চোঁচাঁ
যাদের নিমন্ত্রণ করে এনে ঘরের দাওয়ায় বসতে দিয়েছি পিঁড়ে
খেতে দিয়েছি কবরি কলা
গামছাপাতা দই
শালি ধানের চিড়ে
আর বিন্নি ধানের খই
ভুলেও ভাবিনি সেইসব ভ্রমরের সঙ্গে আছে গুপ্তি

বিশ্বাসঘাতকেরা আমার পিঠে উপর্যুপরি মেরেছে ছুরির পর ছুরি
বুলেটের বৃষ্টিধারায় বারংবার ঝাঁঝরা হয়ে গেছে আমার পৃষ্ঠদেশ
তারা নিরন্তর আমার কবর রচনা করতে চায়
অকৃতজ্ঞ অসূয়ায়
নিজেদের সীমাবদ্ধতায়

বিপরীতে বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের এক কোণে
প্রকৃতির কোলে নিজের নির্জনে
আমি তবু জেগে থাকি
বেঁচে থাকার স্বয়ম্ভু সম্ভাবনায়

হে কৃতঘ্ন বিশ্বাসঘাতকের দল
অন্তত একবার আমার সামনে এসে দাঁড়াও
চোখে রাখো চোখ
উচ্চারণ করো তোমাদের সত্য।