যৌন কেলেঙ্কারী:পোপ ফ্রান্সিসের পদত্যাগ দাবী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ) :   যুক্তরাষ্ট্রের এক প্রখ্যাত কার্ডিনালের যৌন কেলেঙ্কারিতে নিষ্ক্রিয় ভূমিকা পালনের অভিযোগে পোপ ফ্রান্সিসের পদত্যাগ দাবি করেছেন ভ্যাটিকানের প্রাক্তন আর্চবিশপ কার্লো মারিয়া ভিগানো। তবে পোপ ফ্রান্সিস রোববার জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি পদত্যাগ করবেন না।

পোপ ফ্রান্সিসের আয়ারল্যান্ড সফরের সময় আর্চবিশপ কার্লো মারিয়া ভিগানো ন্যাশনাল ক্যাথলিক রেজিস্ট্রারসহ রক্ষণশীল মার্কিন ও রোমান ক্যাথলিক আটটি মিডিয়ার কাছে দীর্ঘ ১১ পাতার একটি বিবৃতিতে বোমা ফাটান।

তিনি প্রাক্তন ও বর্তমান ভ্যাটিকান ও মার্কিন চার্চের কর্মকর্তাদের একটি তালিকা উপস্থাপন করে বলেন, ‘এরা কার্ডিনাল থিওডর ম্যাকক্যারিকের যৌন কেলেঙ্কারি সম্পর্কে জানতেন এবং তা ধামাচাপা দিতে চেষ্টা করেন।’ যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগে গত সপ্তাহে পদত্যাগ করেন মার্কিন কার্ডিনাল থিওডর ম্যাকক্যারিক।

অনেকটা আক্রমণাত্মক ভাষায় ভিগানো বিবৃতিতে বলেন, ‘চার্চে এই ধরনের ধামাচাপাকে দেখে মনে হচ্ছে এটি নীরবতার ষড়যন্ত্র এবং মাফিয়াদের মধ্যে যেমনটি বিদ্যমান থাকে তার থেকে আলাদা কিছু নয়।’

ভিগানো এর আগেও পোপের সমালোচনা করেছেন।

এবার বিবৃতিতে বলেন, ‘পোপ ফ্রান্সিস বরাবরই চার্চে স্বচ্ছতা বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। বৈশ্বিক চার্চের এই চূড়ান্ত নাটকীয় মুহূর্তে তার অবশ্যই উচিত নিজের ভুলগুলো স্বীকার করা। তার ঘোষিত জিরো টলারেন্সের নীতির জন্যই এটি জরুরি। পোপ ফ্রান্সিসেরই উচিত সর্বপ্রথম কার্ডিনাল ম্যাকক্যারিকের অপকর্ম ধামাচাপা দিয়েছেন এমন কার্ডিনাল ও বিশপদের জন্য ভালো দৃষ্টান্ত স্থাপন করা এবং তাদের সবাইকে সাথে নিয়ে পদত্যাগ করা।’

আর্চবিশপ কার্লো মারিয়া ভিগানো এ বিবৃতির স্বপক্ষে কার্ডিনাল ও বিশপদের বিরুদ্ধে কোনো দলিলাদি দেননি। তবে এতে ক্যাথলিক চার্চের বিশ্বাসযোগ্যতা আরো খর্ব হয়েছে, এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না।

প্রায় দুই সপ্তাহ আগে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাথলিক চার্চে যৌন কেলেঙ্কারি তদন্তে পেনসিলভানিয়ার বিচারকমণ্ডলী গুরুতর অভিযোগের কথা প্রকাশ করেন। তারা জানান, গত ৭০ বছরে ওই রাজ্যের চার্চের ৩০১ জন যাজক অপ্রাপ্তবয়স্কদের ওপর যৌন নিপীড়ন চালিয়েছেন।

এদিকে, আর্চবিশপ মারিয়া ভিগানোর এমন বিবৃতির পর পোপ ফ্রান্সিস রোববার তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। ডাবলিন থেকে বিমানে ফেরার পথে সাংবাদিকদের পোপ বলেন, ‘বিবৃতি দেখেই বুঝা যায় এর উদ্দেশ্য কী।’

বিমানে সাংবাদিকরা পোপকে বিবৃতি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, ‘আমি আন্তরিকভাবে বলব যে, আপনারা ও অন্যরা যারা আগ্রহী আছেন বিবৃতিটি ভালোভাবে পড়ুন এবং নিজেরাই যাচাই করুন।’

পোপ বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি একটি কথাও বলব না। আমি মনে করি, বিবৃতিটি নিজেই কথা বলছে এবং নিজেদের উপসংহারে পৌঁছানোর মতো যথেষ্ট সাংবাদিক প্রজ্ঞা আপনাদের রয়েছে।’

তথ্য : রয়টার্স ও আল জাজিরা