ফতুল্লার হরিহরপাড়ার বাউল শিল্পীকে অপহরনের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার(আজকের নারায়নগঞ্জ): ফতুল্লার এনায়েতনগরের হরিহর পাড়া এলাকা থেকে একজন মেয়ে বাউল শিল্পী (১৩) কে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বাউল শিল্পীর মা সোমবার বিকেলে বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় আড়াই হাজার থানা এলাকার সৈকত (২০), রবিন (২৪), আকাশ (২৫) কে আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

ফতুল্লার এনায়েতনগরের হরিহর পাড়া এলাকায় মায়ের সাথে থাকতো বাউল শিল্পী । অনেক বছর আগেই তার বাবা মারা গেছে। মা অনেক কষ্ট করে তাকে লেখা পড়ার করানোর পাশাপাশি বাউল গানও শিখায়। এক সময় বাউল গানে ভাল পরিচিতিও পায় সে।

নারায়ণগঞ্জসহ জেলার বাইরে বিভিন্ন এলাকায় নবাগত শিল্পী হিসিবে পরিচিতিও রয়েছে তার। সোমবার দুপুরে বৃষ্টিকে তার বাসার সামনে থেকে ফুসলিয়ে একটি সিএনজিতে করে সৈকতসহ আরো বেশ কয়েকজন উঠিয়ে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ।

এ ব্যাপারে অপহৃতার মা বলেন, স্বামী মারা যাওয়ার পর অনেক কষ্টে দিনযাপন করেছি মেয়েটিকে নিয়ে। অনেক কষ্টভোগ করারও পরও মেয়েটিকে বাউল গান শিখিয়েছি। ও খুব ভাল গান করতো। বেশ কয়েকদিন আগে আড়াইহাজার থানা এলাকার একটি গানে মেয়েকে নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। গানের আসর থেকে তার মেয়ের কয়েকটি ভিজিটিং কার্ড নেয় কয়েকজন যুবক।

এর পর থেকে বিভিন্ন মোবাইল নাম্বার থেকে বেশ কয়েকজন উত্যাক্ত করা শুরু করে। এক পর্যায়ে জানতে পারি আড়াই হাজার থানা কাহিন্দি মাজার এলাকার রফিক কন্ট্রাক্টারের ছেলে সৈকত আমার মেয়েকে উত্যক্ত করছে। আমি আড়াইহাজারের স্থানীয় ব্যাক্তিদের বিষয়টি জানাই।

সোমবার দিন দুপুরে আমি বাড়ির বাইরে ছিলাম। এসময় সৈকতসহ বেশ কয়েকজন আমার মেয়েকে বিভিন্ন কথা বলে বাসার বাইরে আনে। এরপর তারা একটি সিএনজিতে আমার মেয়েকে উঠিয়ে নিয়ে যায়। আমি বিবাদীর মোবাইলে ফোন করলে আমাকে তারা বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিচ্ছে।

এব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ মোহাম্মদ মঞ্জুর কাদের পিপিএম বলেন, বাদীর অভিযোগ গ্রহণ করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।