সিদ্ধিরগঞ্জে কাউন্সিলর বাদলের বিরুদ্ধে গরু ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ ॥ মামলার নির্দেশ

সিদ্ধিরগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ):  সিদ্ধিরগঞ্জে ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার ও ৭ খুন মামলার ফাসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামী নূর হোসেনের ভাতিজা শাহজালালের বিরুদ্ধে গরু বেপারীর কাছ থেকে ৮টি গরু ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এদিকে সড়কের উপর গরুর হাট বসানোর কারণে এলাকাবাসীর দুর্ভোগ চরমে পৌছেছে।

নাসিক ৩নং ওয়ার্ড মাদানী নগর বালুর মাঠে অনুষ্ঠিত গরুর হাট সীমানা ছাড়িয়ে এলাকার ৪টি সড়কের উপর গরুর হাট বসলে এ দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গরু উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

জানা যায়, নাসিক ৩নং ওয়ার্ড মাদানী নগর বালুর মাঠে হাট পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে ৭ খুনের ফাসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামী নূর হোসেনের ভাতিজা কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল ও তার ঘনিষ্ঠ হাটের ইজারাদার শাহজাহান সাজু।

গত শনিবার রাতে অন্য হাটে যাওয়ার পথে মৌচাক বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ট্রাক থামিয়ে এক গরুর বেপারীর কাছ থেকে কাউন্সিলারের লোকজন ৮টি গরু ছিনিয়ে নিয়েছে যার বাজার মূল্য ১২ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কাউন্সিলর বাদলের লোক হিসেবে পরিচিত রিপন, সোর্স সাইফুল, লিটন, তুষার, রাজু, সিরাজসহ আরও ১০/১২ জন লোক গরু বেপারীকে মারধর করে ট্রাক থেকে ৮টি গরু ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় পুলিশ হাটের ইজারাদার শাহজাহান সাজুকে আটক করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নিয়ে আসে।

নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরক্তি পুলিশ সুপার ঘটনাস্থলে গিয়ে গরু ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস সাত্তার জানায়, ছিনতাই হওয়া গরু উদ্ধারে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এদিকে নাসিক থেকে ইজারা প্রাপ্ত মাদানী নগর বালুর মাঠে গরুর হাট ইজারার এলাকা ছাড়াও মৌচাক থেকে বটতলা ও মাদানী নগর থেকে নিমাই কাশারীর ৪টি সড়কের উপর ২ কি.মি এলাকায় বসে গরুর হাট।

আবাসিক এলাকায় হাট বসায় ও দিন-রাত উচ্চ স্বরে মাইক বাজানোর কারণে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে পরেছে। সড়কের পাশের বাসিন্দা ও দোকানদারদের দুর্ভোগ চরমে পৌছেছে।