মান্দায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মিথ্যা ধর্ষণ মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর মান্দায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এক মহিলা নিজের প্রকৃত বয়স গোপন রেখে মিথ্যা ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার কুসুম্বা ইউপি’র দেলুয়াবাড়ি এম,পি পাড়া’র মৃত আলতাব হোসেনের স্ত্রী একই গ্রামের মৃত তমিজ উদ্দিনের ছেলে সাদেক আলী এবং হাফেজ উদ্দিন কে পরিকল্পিতভাবে ফাঁসাতে গত ৭ অক্টোবর নওগাঁ জজ কোর্টে মামলা নং-৫০০ মিস/২০২০ এবং ২ নভেম্বর মান্দা থানায় ২ নং মিথ্যা ধর্ষণ মামলা দায়ের করার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

জানাগেছে, মামলার বাদী এবং বিবাদীপক্ষ উভয় পরিবারের মাঝে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে দীর্ঘদিন থেকে পারিবারিকভাবে দ্বন্দ্ব চলে আসছিলো। এরই জের ধরে মিথ্যা ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছেন ভূক্তভোগী পরিবারের লোকজন। অন্যের প্ররোচনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে বিবাদমান জমির মালিকদের পরিকল্পিতভাবে ফাঁসাতেই এ মিথ্যা মামলাটি দায়ের করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন ভূক্তভোগী পরিবারের লোকজন। জমি সংক্রান্ত বিরোধের ঘটনাটিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে ঘটনার দিন গত ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে অদ্যবধি স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের লোকজন বিভিন্নভাবে পায়তারা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে জানান অনেকে। এ ঘটনায় এলাকাজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টিসহ জনমনে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। ভূক্তভোগী পরিবারের লোকজন এর থেকে পরিত্রাণ পেতে চায়।

মান্দা থানা পুলিশের তদন্তকারী কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে বলে বলে মান্দা থানা পুলিশ কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছেন। সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করবেন এমনটিই সকলের প্রত্যাশা।