আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্কঃ মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক জাকিরুল আলম হেলাল বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ হলো আন্দালনের পাদপিঠ। সারাদেশকে দেহের সাথে তুলনা করা হলে নারায়ণগঞ্জ হলো তার হৃৎপিন্ড। এই সংগঠনগুলো করোনার সময় দুঃস্থদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে। এই সংগঠনগুলোকে আমরা পরাজিত হতে দিবো না। আমরা দেশের জন্য, এই সমাজের জন্য কাজ করতে চাই। যার উদ্দেশ্যে মানবিক নারায়ণগঞ্জ কাজ করে যাচ্ছে। আমি কোন দলীয় কথা বলতে আসিনি, আমি এসেছি মানবতার কথা বলতে।

শনিবার (৭ নভেম্বর) বিকেলে শহরের চাষাঢ়া শহীদ মিনারে সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আলোকিত সমাজ গড়তে চাই ব্যানারে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, যে পাড়ায় বা মহল্লায় মাদকসেবী আছে এবং মাদক বিক্রেতা আছে সেই সমাজ অন্ধকারে থাকবে। আমরা সবাই সোচ্চার হলেই এই মাদককে নারায়ণগঞ্জের মাটি থেকে উৎখাত করা সম্ভব হবে। ধর্ষণের সর্বোাচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়েছে। তারপরও কেই ধর্ষণ করলে তার মৃত্যু অবধারিত। আমাদের মাদক, সন্ত্রাস ও ধর্ষণের বিরুদ্ধে রূখে দাঁড়াতে হবে।

হেলাল আরো বলেন, যুব সমাজ আজ ঘুমিয়ে আছে। একশ্রেণী মাদকে আসক্ত আরেক শ্রেণী ইন্টারনেটে আসক্ত। এই ঘুমন্ত যুব সমাজকে জাগাতে হবে তাদের মাঠে নিয়ে আসতে হবে। খেলাধুলা, সংস্কৃতির দিকে ধাবিত করার মধ্য দিয়ে যুবসমাজকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করা সম্ভব। আমি এই করোনাকালে ৪ টি শ্রেণী লক্ষ্য করেছি। প্রথমত, যারা ফ্রন্টলাইনে কাজ করেছে। যাদের বেশীরভাগ ছিলো সাধারণ ছাত্র সমাজ। দ্বিতীয়ত, যারা প্রচারণার সাথে কাজ করেছে। তৃতীয়ত, যারা নেপথ্যে কাজ করে আসছে। এবং সর্বশেষ যারা কিচ্ছু করেনি অথচ সমালোচনা করে গেছে।

এসময় বন্দর থানা সংগঠন সমাবেশ প্রস্তুত কমিটির সমন্বয়ক নেয়ামত উল্লাহর সঞ্চালনায় ও বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে উপস্থিত
ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফয়সাল মোহাম্মদ সাগর,মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মো. জুয়েল হোসেন, শহর যুবসংহতির সাধারণ সম্পাদক রিপন ভাওয়াল প্রমুখ।