আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্কঃ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার তারাব পৌর ছাত্রদলের ২১ সদস্য বিশিষ্ঠ নতুন আহবায়ক কমিটি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। এ কমিটির আহবায়ক কাজী রাজন বিবাহিত বলে দাবি করেছে ছাত্রদলের একটি অংশ।

তাদের দাবি এ বছরের আগষ্ট মাসের ১৪ তারিখে পারিবারিক ভাবে কাজী রাজন বিয়ে করেছে। বিয়ের আসরে কাজী রাজন বসে আসে সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তার চাচা কাজী জাভেদ তারাব পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতা ছিলেন।

তারা আরো দাবি করেন, গত ১৭ বছরের মধ্যে কাজী রাজনকে ছাত্রদল কর্মীরা মাঠে দেখেনি। সাড়ে চার লক্ষ টাকার বিনিময়ে,বিবাহিত কাজী রাজনকে,তারাব পৌরসভা ছাত্রদলের আহবায়ক বানানোর কন্টাক্ট নেয় আরমান মোল্লা।

সদ্য ঘোষিত তারাব পৌর ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটির সদস্যরা হলেন কাজী রাজন আহবায়ক , যুগ্ম আহবায়ক মুজহারুল ইসলাম রাজীব, মাসুদ মিয়া, রনি প্রধান, অনিক রহমান, আশিকুর রহমান, ইমরান হুসাইন, শাওলিন হোসাইন ,সারোয়ার হায়দার, তানভীর রহমান ( রাহাত) ,তায়্যেবুল ইসলাম, সদস্য সচিব আনিসুর রহমান, সদস্য রুহুল আমিন ভুঁইয়া, আলিফ আহমেদ শুভ, আব্দুর রহিম শাকিল, মো: সামির, রহমত উল্লাহ, মেহেদী হাসান প্রধান, মিঠু প্রধান, তারিফ খাঁন, আব্দুল্লাহ সিয়াম।

গত ৫ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি ও সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম সজিব এ আহবায়ক কমিটি অনুমোদন দিয়েছে। তবে ২ নভেম্বর(সোমবার) তা প্রকাশিত হয়।

তৃনমূল ছাত্রদলে নেতা কর্মীদের দাবি অবিলম্বে তদন্তপূর্বক কাজী রাজনকে আহবায়ক পদ থেকে বাদ দিয়ে নতুন আহবায়ক দেওয়া হোক।

তারাবো পৌর ছাত্রদলের অনুমোদিত কমিটি