বন্দর প্রতিনিধি(আজকের নারায়নগঞ্জ): কোন কিছু তেই যেন ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের ঘটনা রোধ করতে পারছেনা আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনী। র‌্যাব-১১ ও বন্দর থানা পুলিশের সর্তক অবস্থা থাকার পরও বন্দরে বিভিন্ন স্থানে বের চলছে ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের ঘটনা।

এর ধারাবাহিকতায় গত ৩১শে অক্টোবর শনিবার রাত ৩টায় বন্দর উপজেলার ঢাকা টু চট্রগ্রাম মহাসড়কের জাঙ্গাল এলাকাস্থ এম জামাল উদ্দিন কোম্পানীতে ডাকাতি ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

১৪/১৫ জনের অজ্ঞাত নামা ডাকাত দল অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে উক্ত কোম্পানী দেয়াল টপকিয়ে ভিতরে প্রবেশ করে কম্পোনীতে কর্মরত ৪ নৈশ প্রহরীর হাতপা বেধে প্রায় ২৫ লাখ টাকার মালামাল ডাকাতি করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে এম জামাল উদ্দিন কোম্পানীর কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বাদী হয়ে ২ নভেম্বর সোমবার দুপুরে বন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার ৭(১১)২০।

এ ব্যাপারে কামতাল তদন্ত ফাঁড়ী ইনর্চাজ ইন্সেপেক্টর শফিকুল ইসলাম গনমাধ্যমকে জানান, গত ৩০ অক্টোবর শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টায় অজ্ঞাত নামা ১৪/১৫ জনের একটি ডাকাত দল বন্দর উপজেলার জাঙ্গালস্থ এম জামাল উদ্দিন কোম্পানীতে হানা দেয়। পরে ডাকাত দল ৪ নৈশ্য প্রহরীকে হাতপা বেধে মটর, পানির পাম্প, সাটারিং, স্টিলের জগ, ২টি মোবাইল সেটসহ আরো অন্যান্য মালামাল ডাকাতির করে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে বন্দর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আমরা লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যহত রেখেছে। বন্দরে ঘন ঘন ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বন্দরে সচেতন মহল।