আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্কঃ পথিমধ্যে আটকে গেছেন ফ্রান্সের দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচিতে যোগদানের লক্ষ্যে ঢাকায় রওয়ানা হওয়া নারায়ণগঞ্জ হেফাজত ইসলামের নেতৃবৃন্দ ।

ঢাকা-নারায়নগঞ্জ লিংকরোডের সাইনবোর্ড এলাকায় প্রশাসনের বাঁধার মুখে পরে নেতারা।

এ সময় তারা সেখানেই অবস্থান করে মিছিল ও সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নেয়। পরে অনেকেই পায়ে হেটে ঢাকার উদ্দেশ্যে চলে গিয়েছেন বলে জানায় নারায়ণগঞ্জের হেফাজত নেতারা।

সোমবার( ২ নভেম্বর) নারায়ণগঞ্জ জেলা হেফাজত ইসলামের আমির মাওলানা আব্দুল আউয়াল এ তথ্য জানান।

আব্দুল আউয়াল বলেন, ফ্রান্সের দূতাবাস ঘেরাও উদ্দেশ্যে আমরা রওনা দিয়েছিলাম প্রশাসনের বাঁধায় সাইনবোর্ডে অবস্থান করে আমরা মিছিল ও সমাবেশ করবো।

সাইনবোর্ড এলাকায় দায়িত্বরত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(প্রশাসন) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, যেকোন ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়ানোর লক্ষ্যে এবং পরিস্থিতি যাতে অস্বাভাবিক না হয় সেজন্য ব্যবস্থা নিয়েছি। আমাদের সাথে জেলা হেফাজত ইসলামের আমিরসহ নেতৃবৃন্দ একাত্ন পোষণ করে তারা কয়েকজন নেতৃবৃন্দ মাইক্রোতে করে ঢাকার উদ্দেশ্যে চলে যান এবং অধিকাংশকেই মোনাজাত করে ফিরিয়ে দেন।

তিনি আরো বলেন, আপাতত জেলায় কোন সমস্যা নেই। ধীরে ধীরে গণপরিবহনসহ সকল যান চলাচল স্বাভাবিক হলে জনজীবন আগের অবস্থায় ফিরে আসবে।

ফ্রান্সের দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচির কারণে নারায়ণগঞ্জের জনসাধারণের মধ্যে ব্যাপক
ভোগান্তি পরিলক্ষিত হয়। সোমবার সকাল থেকে বন্ধ ছিল জেলার সকল গণপরিবহন, ঢাকার উদ্দেশ্যে কয়েকটি বাস ছেড়ে গেলেও সাইনবোর্ড যাওয়ার আগেই ফেরত আসতে হয়েছে সেগুলোকে। ফলে অফিসগামীদের পায়ে হেটে গন্তব্যে যেতে দেখা গেছে।