দুর্দিনে পাশে থাকা সেই মান্নান ভাইয়ের কথা বলবোই- স্বপন

সোনারগাঁ(আজকের নারায়নগঞ্জ): সোনারগাঁ থানা যুবদলের আহবায়ক ও জেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক শহিদুর রহমান স্বপন প্রত্যায় ব্যক্ত করে বলেছেন ,দুর্দিনে যাকে পাশে পেয়েছি আজকে সেই আজহারুল ইসলাম মান্নানকে সামনে রেখে বলতে চাই আমরা যুবদল আপনাদের সবার সাথেই আছি। আপনারা যখন যিনি দলের নেতৃত্বে থাকবেন আমরা আপনাদের ভ্যানগার্ড হয়ে পাশে থাকতে চাই।

স্বপন বলেন, আমরা আজহারুল ইসলাম মান্নান ভাইকে সবসময় রাজপথে পেয়েছি,নেতাকর্মীদের দুর্দিনে পেয়েছি,সেজন্য আমরা আজহারুল ইসলাম মান্নান ভাইয়ের কথাই বলবো। বিগত দিনে ফ্যাসিবাদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই অনেক মামলা-হামলা হয়েছে,অনেক নির্যাতনের শিকার হয়েছিন,আপনারা অনেকেই বলেছেন যারা আমরা গ্রুপিংয়ের রাজনীতি করেছি,কেউ মান্নান ভাই করেছি আবার কেউ রেজাউল করিম করেছি। অনেকেই বলেছেন আমাদের খোঁজ খবর নেয় না। খোঁজ খবর ঠিকই নিয়েছেন কারন আমরা সঠিক নেতৃত্বের পেছনে ছিলাম,সেই আজহারুল ইসলাম মান্নান ভাইকে ঠিকই দুর্দিনে পাশে পেয়েছি।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, মিলাদ ও কেক কাটার অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মঙ্গলবার( ২৭ অক্টোবর) বিকেলে কাঁচপুরে এ আয়োজন করে সোনারগাঁ থানা যুবদল।

নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক ও সোনারগাঁ থানা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আশরাফ ভূইয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির কার্যকরী সদস্য সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম মান্নান।

উপস্থিত ছিলেন সাদিপুর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সেলিম সরকার, জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক রাসেল রানা, মুশফিকুর রহমান মোহন, সহ সাধারণ সম্পাদক সেলিম হোসেন দিপু,সোনারগাঁ থানা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক নুরে ইয়াসিন নোবেল, আশরাফ প্রধান, আশরাফ মোল্লা, সাজ্জাদ চৌধুরী চপল,কামাল হোসেন ও আমির হোসেন। কার্যকরী সদস্য শাহিন আলম জোবায়ের, আমজাদ, সুমন মিয়া, আলমাস, আতাউর রহমান, খন্দকার রেজাউল, অলিউর রহমান।

আরো উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুর ইউনিয়ন যুবদলের আহবায়ক মোর্শেদ, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আলামিন বেপারী, বারদী ইউনিয়ন যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ডা. সানোয়ার, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আতাউর রহমান আপেল, যুবদল নেতা বাবুল হোসেন, আ: গফুর, এমদাদ, জুয়েল রানা, আনোয়ার হোসেন, দেলোয়ারসহ বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সকলকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আজহারুল ইসলাম মান্নান বলেন, এখন সোনারগাঁয়ে বিএনপির মূল দলের কোন অস্তিত্ব নেই। যারা কমিটি আনতে কেন্দ্রের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরছেন তাদের উদ্দেশ্যে বলছি, কেন্দ্র কমিটি দেবে না, কমিটি দেবে সোনারগাঁয়ের নেতাকর্মীরা। তাই সোনারগাঁয়ের বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, ছাত্রদল, শ্রমিকদল, মহিলাদলসহ প্রতিটি অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের পাশে দাড়ান। তাদেরকে ঐক্যবদ্ধ করে দলকে শক্তিশালী করুন। ব্যক্তির পিছনে না ঘুরে দলের জন্যে কাজ করুন। কাজের মূল্যায়নেই আগামী দিনে সোনারগাঁয়ের নেতাকর্মীরা তাদের নেতৃত্ব বাছাই করে নিবে।

এ সময় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও যুবদলের কেন্দ্রীয় সাধারন সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর সুস্থ্যতা কামনায় বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয় এবং কেক কেটে যুবদলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়।