সোনারগাঁয়ে ভূমি দস্যুর বিরুদ্ধে ডিসির কাছে এক ভুক্তভোগীর অভিযোগ

 

স্টাফ রিপোর্টার (আজকের নারায়নগঞ্জ): লুটতরাজ, ছিনতাই ও ভূমি দস্যুসহ নানা অপকর্ম দেশে বেড়েই চলেছে। তারিই পরিপ্রেক্ষিতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার ভূমি দস্যুর বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন এর কাছে এক ভুক্তভোগী অভিযোগ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিনের কাছে সোনারগাঁ থানার কাবিলগঞ্জ এলাকার মো. জয়নাল আবেদীনের ছেলে মো. মমিন মিয়া এ অভিযোগ করেন।

অভিযোগটি পাঠকের জন্য হুবহু দেওয়া হলো, যথাযথ সম্মান প্রদর্শন পূর্বক বিনীত নিবেদন এই যে আমি মো. মমিন মিয়া (৩৫) পিতা মো. জয়নাল আবেদীন সাং কাবিলগঞ্জ, থানা সোনারগাঁ, জেলা নারায়ণগঞ্জ। এই মর্মে অভিযোগ করিতেছি যে,
আমার পৈত্রিক ৩০ শতাংশ ভূমিতে পুকুর খনন ও পুকুরে বাঁধ নির্মান করিয়া উহাতে মৎস এবং বিভিন্ন রকম শাক সবজি ও ফল মূলের চাষ করিয়া আসিতেছি। গত( ২৮/০৯/২০) ইং তারিখ রাত্রের অন্ধকারে মেসার্স আনিরা কারখানার মালিক (১) মো. আশরাফ উদ্দীন,পিতা-মৃত সামসুউদ্দিন, সাং কাবিলগঞ্জ, থানা সোনারগাঁ, জেলা নারায়ণগঞ্জ এর হুকুমে, (২) মো.মোতালিব পিতা-মৃত ইসহাক সাং কাবিলগঞ্জ, থানা সোনারগাঁ, জেলা নারায়ণগঞ্জ ড্রেজার দিয়া আমার পুকুরে বালু ভরাট করিয়া পুকুরের মৎস ও শাক সবজি ও ফল মূলের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করিয়া আসিতেছে। যাহার ফলে প্রায় ৩,৫০,০০০/- টাকার ক্ষতি সাধিত হয়।

উল্লেখ্য যে, উপরোক্ত মো. আশরাফ উদ্দীন ও মো. মোতালিব এলাকার ভূমি দস্যু ও সন্ত্রাসী হিসেবে ব্যাপক পরিচিত। এরাকার লোকজনের ভূমিতে জোর পূর্বক প্রবেশ করিয়া তাহাদের পালিত সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়া গ্রামবাসীর ভূমি দখল করে। ইতি পূর্বে আমি তাহাদের এহেন কর্মে সোনারগাঁ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি, যাহার নং ১৩৭৮, তারিখ (৩০/০৯/২০) ইং উল্লেখ্য যে, গ্রামবাসীর ভূমি ও সরকারী খাল বিল অবৈধ ভাবে বালু ভরাট করে সরকারী সম্পত্তি দখল করিতেছে।