সরকার গোটা দেশকেই কার্যত নরকে পরিণত করেছে — আবু হাসান টিপু

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ সাবেক ছাত্রনেতা ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য জননেতা কমরেড আবু হাসান টিপু ধর্ষণ ও বিহারহীনতার বিরুদ্ধে ঢাকা-নোয়াখালী অভিমুখে লং-মার্চে পুলিশি ছত্রছায় ছাত্রলীগ, যুবলীগের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, সরকারি দল আবারও একবার প্রমাণ করলো তারাই মূলত ধর্ষকদের পাহারাদার এবং আশ্রয়-প্রশ্রয়দাতা।
তিনি বলেছেন সাম্প্রতিক কালে ‘ধর্ষণের অপরাধে মৃত্যুদন্ড’ এই আইন যে কার্যত ধর্ষণ ও বিহারহীনতার বিরুদ্ধে সারা দেশে গড়ে উঠা আন্দোলনকে কে ঠেকানোই সরকারের উদ্দেশ্য ছিল তা আজ প্রমাণীত। প্রকৃত পক্ষে ‘ধর্ষণের অপরাধে মৃত্যুদন্ড’ এই আইনটি হলো এক ধরণের সুভংকরের ফাঁকি। বরং ধর্ষক, লুটেরা, চোর-চোট্টা আর ভোট ডাকাতদের নেতৃত্বেই আজ সরকার পরিচালিত হচ্ছে। এরা গোটা দেশকেই কার্যত নরকে পরিণত করেছে। এই নরক থেকে মুক্তির লক্ষ্যে প্রতিবাদ করলে, প্রতিবাদীদের উপর হামলা আক্রমন করছে। পুলিশসহ গোটা প্রশাসন সরকারি এই কর্মকান্ড প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে ক্ষমতাসীনদেরই সহায়তা করছে। বিচার না করায়, সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় না আনায় ক্রমান্বয়ে এইসব ঘটনা বেড়েই চলছে। বিচারহীনতার রেওয়াজ একটা সাধারণ নিয়মে পরিণত হয়েছে।
আবু হাসান টিপু অবিলম্বে লং-মার্চে হামলাকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার ও শাস্তির আওতায় আনাসহ সারাদেশে ঘটে যাওয়া সকল ধর্ষণ, নারী নির্যাতন ও হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবী করেন। একই সাথে এই ধর্ষণ ও নারী-শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলনে অংশগ্রহণ করারও আহ্বান জানান।