বন্দরে সকল শিশুকে ভিটামিন “এ” ক্যাপসুল খাওয়ানোর আহবান ডাঃ মেহববা সাঈদের

বন্দর প্রতিনিধি(আজকের নারায়নগঞ্জ):  নানা সমস্যায় জর্জরিত বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালটি। নানা প্রকার সমস্যা ও নিরাপত্তাহহীনতার মধ্যে থেকেও নিজের কর্মের বহিঃপ্রকাশ দেখাতে এখানে যোগদান করেছেন বলে জানান ইনচার্জ ডাঃ মেহববা সাঈদ।

আপনার শিশুকে ভিটামিন “এ” ক্যাপসুল খাওয়ান এমন শ্লোগানকে সফল করার জন্য বন্দরবাসীকে আহবান জানান। এ শ্লোগানকে সফল করতে বন্দরে ১শ’ ২০ টি কেন্দ্র, ও মূল কেন্দ্র বন্দর উপজেলা হাসপাতাল। গত ৪ অক্টোবর থেকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো শুরু হয়।

আগামী ১৭ তারিখ পর্যন্ত তা চলমান থাকবে উল্লেখ্য করে ডাঃ মেহববা সাঈদ বলেন আমাদের পেশাটা হল মানব সেবা করা। কোন মানুষ অসুস্থ হলেই হাসপাতালে আসে। সেখানে আমরা যদি যথাসাধ্য চেষ্টা না করি তাহলে এমন মহৎ পেশাকে অবমাননা করা হবে। এ উদ্দেশ্য নিয়েই আমি ডাক্তারি করি।

এ হাসপাতালে সমস্যার কোন শেষ নেই, এমনকি জীবনের নিরাপত্তাহীনতা রয়েছে তা জেনেও যোগদান করেছি। এ হাসপাতালে যোগদান করে দেখলাম সত্যিই সমস্যা অনেক। মূল ফটক ও আবাসিক ফটকে কোন গার্ড নেই। আবাসিক এলাকাগুলো রাত হলে অন্ধকার নগরীতে থাকে। তারপরও বহিরাগত লোকদের পদচারন দেখা যায়। যে কোয়াটারগুলো খালি সেখানে তারা আড্ডা করে। যা গত ১৩ অক্টোবর দুপুরে আমার কাজের ফাঁকে রুমে যেতেই দেখি অপরিচিত কিছু কন্ঠ। কে কে বললে তারা চলে যায়। তখন তাৎক্ষনিক বন্দর থানা ও বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহম্মেদকে ফোন দিলে তিনি তাৎক্ষনিক লোক পাঠান। তবে হাসপাতালে অনেক প্রকার সমস্যা আছে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ রশিদ ভাই, নির্বাহী কর্মকর্তাসহ স্থানীয় সচেতন মহলের সহযোগিতা চাই যাতে ভাল সেবা দিতে পারি।

সর্বশেষ আগামী ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত সকলকে স্ব স্ব উদ্যেগে তাদের সন্তানদের ভিটামিন “এ” ক্যাপসুলটা খাওয়ানের বিশেষ আহবান জানান।