শক্তিশালী আইরিশদের হারালো বাংলাদেশ ‘এ’ দল

ক্রীড়া ডেস্ক(আজকের নারায়নগঞ্জ):  আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। আইরিশদের দেয়া ১৫৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে অধিনায়ক সৌম্য সরকারের অর্ধশতকে ১২ বল হাতে থাকতেই ৪ উইকেটের জয় ছিনিয়ে নিয়েছে লাল-সবুজরা।

সোমবার ডাবলিনে উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড, কেভিন ও’ব্রেইনের মতো তারকা ব্যাটসম্যানদের নিয়ে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় স্বাগতিকরা।

নির্ধারিত ২০ ওভারে সবক’টি উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান করতে সক্ষম হয় আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দল। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪১ রান করেন সিমি সিং।

আইরিশদের জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক পোর্টারফিল্ড ১২ বলে ১৪ রান করেন। অন্যদিকে অভিজ্ঞ ও’ব্রেইন ১২ বলে ২১ রান করে আউট হন।

বাংলাদেশিদের মধ্যে বল হাতে দুটি করে উইকেট নেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, শরিফুল ইসলাম ও তাইজুল ইসলাম। একটি করে উইকেট পেয়েছেন নাইম হাসান ও আফিফ হোসেন।

মাঝারি লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই মাঠ ছাড়তে হয়ে ওপেনার জাকির হোসেনকে।

ফার্স্ট ডাউনে নামা নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে ৬২ রানে জুটি গড়েন সৌম্য। ২৩ বলে ব্যক্তিগত ৩৮ রানে ফিরে যাওয়ার আগে ৭টি বাউন্ডারি হাঁকান শান্ত।

অন্যদিকে রানের চাকা সচল রেখে মোহাম্মদ মিথুনকে নিয়ে এগিয়ে যেতে থাকেন সৌম্য। দুজনে মিলে ৪৪ রানের জুটি গড়ার পর দলীয় ১০৬ ও ব্যক্তিগত ৮ রানে আউট হন মিথুন।

স্কোর কার্ডে চার রান যোগ হতে ফিরে যান অধিনায়কও। মাঠ ছাড়ার আগে ৪১ বলে ৫৭ রান করে জয় প্রায় নিশ্চিত করেন সৌম্য। ঝকঝকে এই ইনিংসটি শেষ হবার আগে পাঁচটি চার ও তিনটি ছক্কা উপহার দেন বাম-হাতি এই ব্যাটসম্যান।

৭ বলে ৫ রান করে আউট হন আল-আমিন। আর ৬ বল খেলে মাত্র দুই রান করে মাঠ ছাড়তে হয় মিজানুর রহমানকে।

তবে মাত্র ২১ বলে ৩৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন আফিফ হোসেন। অপরাজিত এই ইনিংসে তার চারটি চার ও একটি ছক্কা ছিল। ১৮তম ওভারের শেষ বলে ম্যাচ জেতার সময় বাম-হাতি এই অলরাউন্ডারের সঙ্গে ক্রিজে ছিলেন ৩ বলে ৪ রান করা সাইফুদ্দিন।

আইরিশদের হয়ে তিনটি উইকেট তুলে নেন অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইন। দুটি উইকেট শিকার করেন পিটার চেস।

আগামী বুধবার  টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই দল।

এর আগে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়। বাকি চার ম্যাচে ২-২ এ জয় পেয়ে সমতায় নিয়ে সিরিজটি শেষ হয়।