সব বয়সী নারীদের এই ৬ ফল অবশ্যই খাওয়া উচিত

স্বাস্থ্য(আজকের নারায়নগঞ্জ):  নারীরা অফিস, সংসার, সম্পর্ক সব একা হাতে সামলানোর পরেও নিজেদের সুন্দর করে সাজিয়ে রাখেন। তাদেরও খারাপ দিন আসে, মুড সুইং হয়, ক্র্যাম্প হয়, শক্তিক্ষয় হয়, মাথা যন্ত্রণা হয়। সর্বোপরি বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তারা রাগি হয়ে যায়। ভিটামিন বি১২, সি, ডি এবং আয়রন ও ক্যালশিয়াম এই সময় তাদের বিশেষ প্রয়োজন। নারীদের দেহের বিভিন্ন জৈবিক প্রয়োজনে বিভিন্ন স্বাস্থ্যকর খাদ্য, ফল ইত্যাদি গ্রহণ অত্যন্ত প্রয়োজন হয়। ডায়াবেটিস, হাড় ক্ষয়, স্তন ক্যানসার, হার্টের বিভিন্ন সমস্যা, দৃষ্টিশক্তি ক্ষীণ হয়ে আসা, ত্বকের বার্ধক্য ইত্যাদি বিভিন্ন সমস্যা দূরে রাখতে সুষম ও স্বাস্থ্যকর খাদ্যগ্রহণ অবশ্যই প্রয়োজন।

চেরি

মধ্য বয়সী নারীদের গাউট এবং আরথ্রাইটিসের সমস্যা দূর করে চেরি। এছাড়াও, চেরিতে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। সপ্তাহে কয়েক ডজন চেরি বা মিষ্টিবিহীন চেরির রস সপ্তাহে তিন-চার দিন পান করুন। অথবা, দই সহযোগে তাজা চেরি গ্রহণ করুন, দেহে ভিটামিন অনুপ্রবেশ করবে।

টম্যাটো

লাইসোপিন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের উৎকৃষ্ট উৎস টম্যাটো। লাইসোপিন নারীদের দেহে ক্যানসার কোষ জন্মাতে এবং বৃদ্ধি পেতে বাধা সৃষ্টি করে এবং হার্টের সমস্যা দূর করে। এছাড়াও, লাইসোপিন গ্রহণের ফলে ত্বকের বার্ধক্য আসতেও দেরি হয় বলে গবেষণায় জানা গেছে। রান্না, কাঁচা, জুস করে বা মিষ্টিবিহীন সস হিসাবে টম্যাটো গ্রহণ করুন।

পেঁপে

পেঁপে আমাদের শরীরের পক্ষে অত্যন্ত উপকারী। ভিটামিন এ, সি, ফলেট এবং অন্যান্য ফাইটোকেমিক্যালের উৎকৃষ্ট উৎস পেঁপে। পেঁপেতে পাপাইন নামক উতসেচক থাকে যা আমাদের হজম ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এছাড়াও পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন থাকে। মিষ্টি পেঁপে ডায়াবেটিস, হার্টের সমস্যা, বুকজ্বালা ইত্যাদি বিভিন্ন সমস্যার হাত থেকে আমাদের রেহাই দেয়। কাঁচা, পাকা বা শুকনো- যেভাবে খুশি পেঁপে গ্রহণ করুন।

পেয়ারা

১০০ গ্রাম পেয়ারায় ২২৮ দশমিক ৩ গ্রাম ভিটামিন সি উপস্থিত। এই ফলটা অনেকে শক্ত ও বীজযুক্ত হওয়ায় এড়িয়ে যায়। কিন্তু এই ফল আমাদের শরীরের পক্ষে ভীষণ উপকারী। পরীক্ষায় প্রমাণিত হয়েছে, পেয়ারা রক্ত শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখে। পেয়ারায় প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম ও তন্তু থাকে যা হার্ট ভাল রাখতে সাহায্য করে। মাসিকের সমস্যা ও পেটে ব্যথা কমাতেও সাহায্য করে পেয়ারা। এছাড়া, মানসিক সমস্যা, দৃষ্টিশক্তি, বর্ণ, মেটাবলিজম ইত্যাদি ভাল করে এই ছোট্ট ফল।

আপেল

আপেলে প্রচুর পরিমাণে পেকটিন থাকে, যা আমাদের দেহে অতিরিক্ত ফ্যাট সংশ্লেষিত হতে বাধা দেয়। আমাদের অনেকটা সময় পেট ভর্তি রাখতে সাহায্য করে আপেল। এছাড়াও জানা গেছে, নিয়মিত আপেল গ্রহণ করলে হার্টের সমস্যা দূর হয়। এছাড়াও যে সব নারীরা নিয়মিত আপেল গ্রহণ করেন তাদের করোনারি সমস্যা কম হয়।

অ্যাভোক্যাডো

অ্যাভোক্যাডো যে শুধুমাত্র আমাদের স্বাদকোরককে সন্তুষ্ট করে তা নয়, নারীদের প্রিয় বন্ধু অ্যাভোক্যাডো। এই সুস্বাদু ফলে স্বাস্থ্যকর মনোস্যাচুরেডেট ফ্যাট থাকে যা, এলডিএল বা খারাপ কোলেস্টেরল কম করতে সাহায্য করে এবং শরীরের অতিরিক্ত মেদ দূর করে।

তাই নারীরা আর অপেক্ষা কীসের? এই সব ফলগুলো নিয়মিত খাওয়া শুরু করুন এবং সুস্থ ও সুন্দর থাকুন।

সূত্র: এনডিটিভি