রূপগঞ্জে নৌকাই থাকবে,অন্য প্রতীক আসবে না – দস্তগীর গাজী

রূপগঞ্জ(আজকের নারায়নগঞ্জ): নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী আগামী নির্বাচন প্রসঙ্গে বলেছেন, রূপগঞ্জে নৌকা আছে নৌকাই থাকবে। এখানে মহাজোটের অন্য কোন প্রতীক আসবে না। কারণ এখানে নৌকা মার্কাই উন্নয়ন করেছে। কেউ নৌকার উন্নয়ন ঠেকাতে পারবে না।

তিনি আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আগামী নির্বাচনে নৌকার বিজয়ে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। নির্বাচন আসলে একটি চক্র টাকা কামানোর জন্য নানা গুজব ছড়ায়। আপনারা কোন প্রকার গুজবে কান দেবেন না। বর্তমান সরকারের আমলে রূপগঞ্জের উন্নয়ন চিত্র জনগণের সামনে তুলে ধরবেন।

রূপগঞ্জ উপজেলার তারাব পৌর আওয়ামীলীগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার ১১ আগস্ট তারাব পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে পৃথক পৃথক আলোচনা সভার আয়োজন করে স্থানীয় আওয়ামীলীগ। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য রণাঙ্গণের খেতাব প্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা বিশিষ্ট শিল্পপতি গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় গোলাম দস্তগীর গাজী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হারিয়ে বাঙালি জাতি ২১ বছর উন্নয়ন বঞ্চিত ছিলো। স্বাধীনতা বিরোধীশক্তি রাষ্ট্রক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধুর নাম ইতিহাস থেকে মুছে ফেলে দিতে চেয়েছিলো। কিন্তু পারে নাই বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার করছে। রায় কার্যকর করছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন করছে।

তারাব বাসির উদ্দেশ্যে গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, তারাব পৌর সভায় কোন মাটির রাস্তা থাকবে না। নির্বাচনের আগে আমার দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করছি। আপনাদের গ্যাস দিয়েছি। স্কুল কলেজ রাস্তাঘাট নির্মাণ করে দিয়েছি। চলমান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনে সবাইকে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে হবে।

এমপি গোলাম দস্তগীর গাজী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়ার আয়োজনের জন্য তারাব পৌর সভার আওয়ামীলীগের সকল নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর পরিবারের শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন হযরত মাওলানা ওবায়দুল হক।

আলোচনা সভায় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ভিপি বাদল। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা, সহ সভাপতি ইঞ্জি.শেখ সাইফুল ইসলাম,প্রচার সম্পাদক মানজেরী আলম টুটুল, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা, তারাব পৌরসভার মেয়র হাছিনা গাজী,তারাব পৌরসভার আওয়ামীলীগের সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন ,সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামরুজ্জামান তুহিন, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান শাহিন,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবুল কালাম স্বপন, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য নারী নেত্রী শীলা রাণী পাল,আওয়ামীলীগ নেতা ফিরোজ খান, ফিরোজ ভূইয়া,আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান হাবিব, কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম মফিজ, আনোয়ার হোসেন, মনির হোসেন, বিএম.আতিক, তারাব পৌরসভার যুবলীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া মোল্লা ,তারাব পৌরসভার স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবেল, সাপ্তাহিক রূপকণ্ঠ পত্রিকার সম্পাদক নজরুল ইসলাম চৌধুরী, রূপগঞ্জ উপজেলা তাঁতীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন,তারাব পৌর আঞ্চলিক সড়ক পরিবহণের সভাপতি মোজাম্মেল হক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, রূপগঞ্জ উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ফেরদৌসী, সাধারণ সম্পাদক সেলিনা আক্তার রীতাসহ তারাব পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।