কদমফুলে বারুদের গন্ধ

– আলাউদ্দিন গাজী

শ্রাবনের বারি ধারা ঝরে অবিরাম
কদমফুলে আজ বারুদের গন্ধ
লাশের পর লাশ যেন ভগ্নস্তূপের
ইট-পাথর।
আকাশ বাতাস ভারি তাই বাসি
রক্তের গন্ধে।

লুট হয়েছে লাজে রাঙা রমণীর লজ্জা
বুটের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত দেহ লুটায়
রাস্তার পরে। প্রতিবাদে মুখর যুবকেরা।
হায়নার পিশাচিকতায় মানবতা ভূলুন্ঠিত
প্রতিকার নেই ? দিনের আলোয় অন্ধকার
নামে শকুনের ডানায়।

বঙ্গবন্ধু তোমাকে খুঁজি তাই জনতার মাঝে
কোথায় বাংলার পিতা ? হাহাকার চৌদিকে।
বিষাক্ত দন্ত বিকশিত সম্রাট শাহজাহানের।
নিরীহ নর-নারী শিশুদের দিকে।

বাংলার হৃদয় ভেঙে হচ্ছে চুরমার
শ্রাবণের জল আজ অশ্রু নদী।
রবীন্দ্রনাথ, নজরুল , জসিমউদ্দিন
বুক তাঁদের বিষাদে ভরপুর।

ভাটিয়ালী গানে হতাশার সুর
নেই শিল্পীর আঁকা অপূর্ব কারুকাজ
ঘোমটার আড়ালে নেই যুবতীর অপরূপ মূর্তি
আযানের সুরে আজ করুণ মিনতি।