চাঁদার দাবীতে বন্দরে বাড়ী নির্মান বন্ধ,মাদ্রাসা শিক্ষককে মারধর

বন্দর(আজকের নারায়নগঞ্জ): বন্দরের মদনপুরে বাড়ী নির্মানে বাধাঁ ও লাখ টাকা চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় মাদ্রাসা শিক্ষককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে সন্ত্রাসী ডালিমগংদের বিরুদ্ধে। এ অভিযোগে  মঙ্গলবার  মাদ্রাসা শিক্ষক আলী ইমাম বাদী হয়ে মদনপুর ইউপি’র ১নং ওয়ার্ডের মদনপুর উত্তরপাড়া-কেত্তারবাগ এলাকার মৃত আলী আকবরের ছেলে ডালিম (৩২), রমজান (৩০), মোজাম্মেল (২৮) ও খোকন (২৬) কে অভিযুক্ত করে বন্দর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

লিখিত অভিযোগ ও শিক্ষক আলী ইমামের সাথে কথা বলে জানা যায়, রিয়াজুল উলুম আলিম মাদ্রাসায় ২১ বছরের শিক্ষকতা পেশায় থেকে বহু কষ্টে দিনাতিপাত করে ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের টাকা দিয়ে তিনি অত্র কেত্তারবাগ এলাকায় ২ শতাংশ জায়গা কিনেছেন শিক্ষক আলী ইমাম।

প্রভিডেন্ট ফান্ডের বিপরীতে ঋণ নিয়ে তিনি বিল্ডিং নির্মানের কাজ হাতে নেবার পর থেকেই পাশের বাড়ির মরহুম আলী আকবরের ছেলে ডালিম, রমজান, মোজাম্মেল ও খোকন তাকে ১ লক্ষ টাকা চাঁদার দাবীতে নিয়মিত বিরক্ত করছে এবং চাঁদা না দিলে তারা নানান তালবাহানা করে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিচ্ছে।

বিষয়টি ২বার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে জানালে স্থানীয়রা মীমাংসা করে দিলেও তারা বেপরোয়াভাবে আলী ইমামের কাজে বাধা দিয়ে যাচ্ছে।

সর্বশেষ গতকাল মঙ্গলবার দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আরও অজ্ঞাত কয়েকজন যুবককে নিয়ে তারা নির্মাণ কাজে বাধা প্রদান করে এবং চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে শিক্ষক আলী ইমামকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং তাকে কিল-ঘুষি মেরে শরীরের কয়েক জায়গায় নিলাফুলা ঝখম করে।

বিবাদীরা বাদী আলী ইমামকে চাঁদা না দিলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেন এবং যারা তাদের বাধা দিতে আসবে তাদের পা কেটে ফেলার হুমকি দেন। গতকাল তারা নির্মাণ কাজে নিযুক্ত মিস্ত্রী আল আমিনের টুটি ছিড়ে ফেলবে বলেও হুমকি ও ধামকি প্রদান করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা তাদের সমন্ধে বলেন, ডালিম ও খোকন দুই ভাই চিহ্নিত জুয়ারী ও মাদক ব্যবসায়ী। ডালিম ও রমজান তার পিতাকে ভরন পোষণ না দিয়ে টাকার জন্য মারধর করত। এক পর্যায়ে সন্তানদের দ্বারা নির্যাতিত হয়ে তার পিতা আলী আকবর ধুকে ধুকে মারা যায়। পূর্বে কাঁচপুর ইউনিয়নের হাটখোলাভিটা এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও মারামারী করায় এক শালিসে তাদের ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এ বিষয়ে বন্দর থানার ওসি শাহীন মন্ডল জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।