মান্দায় ইজারাকৃত পুকুরের মাছ লুটে নেয়ার অভিযোগ !

 

নওগাঁ প্রতিনিধি(আজকের নারায়নগঞ্জ): নওগাঁর মান্দা উপজেলা ভূমি অফিস থেকে ইজারা দেয়া পুকুরে মাছ লুটে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী হরেন্দ্রনাথ এর বিরুদ্ধে। উপজেলার গণেশপুর ইউনিয়নের গণেশপুর গ্রামে গত দু’দফায় প্রায় ২ লক্ষ টাকার মাছ ধরে নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে ।

সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার পূনরায় মাছ ধরা হয়েছে বলে অভিযোগ কারী আব্দুস সামাদ জানান।

জানা গেছে, গত ২৭ মার্চ গণেশপুর মৌজায় ৫৬ শতাংশ খাস পুকুর উপজেলা ভূমি অফিস থেকে উপজেলার ‘চকবালু মৎস্যজীবি সমবায় সমিতি লিমিটেড’ নামে এক সমিতিকে আগামী তিন বছরের জন্য ইজারা দেয়া হয়। সমিতির সদস্যদের বাড়ী পুকুর থেকে দুরবর্তী হওয়ায় পুকুর পাড়ে বসবাসকারী আব্দুস সামাদ নামে এক ব্যক্তিকে মাছ চাষের দেখভালের দায়িত্ব দেয়া হয়। এরপর আব্দুস সামাদ পুকুরে মাছ চাষ শুরু করেন। কিন্তু স্থানীয় প্রভাবশালী হরেন্দ্রনাথ মাছ চাষে আব্দুস সামাদ কে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি, হুমকি ও বাধা প্রদান করেন।

এনিয়ে মান্দা থানায় ২৬মে এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর গত ২৪ জুন অভিযোগ দেয়া হয়। গত দুই দফায় প্রভাবশালী হরেন্দ্রনাথ এর নেতৃত্বে ২০/২৫জন লোক পুকুর থেকে প্রায় ২ লক্ষ টাকার মাছ ধরে নেয়। প্রভাবশালী হরেন্দ্রনাথ ওই পুকুরটি নিজের বলে দাবী করেন। কিন্তু পুকুর নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে আদালতে ২৭৫সি/২০১৪ মামলা চলমান।

স্থানীয়রা বলছেন, হরেন্দ্রনাথ জাল দলিল মুলে প্রভাব খাটিয়ে পুকুরটি দখলে নেয়ার চেষ্টা করছেন। বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানানো হয়।