শিক্ষার্থীদের হাতে চকলেট-ফুল দিয়ে ক্লাসে ফিরার আহ্বান

রংপুর(আজকের নারায়নগঞ্জ): শিক্ষার্থীদের হাতে চকলেট তুলে দিয়ে ক্লাসে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে রংপুরের পুলিশ।

রাজধানীতে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের বিচার ও নিরাপদ সড়কসহ নয় দফা দাবি আদায়ে আজও সড়কে নেমেছে রংপুরের শিক্ষার্থীরা। সকাল থেকে নগরীর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে পুলিশের অবস্থান ও মোড়ে মোড়ে তল্লাশি অভিযান থাকলেও বাধা উপেক্ষা করে মানববন্ধন ও সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেছে তারা।

সকাল ১০টার দিকে মেডিকেল মোড়ের সড়ক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা। এ সময় পুলিশের সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুর রহমান শিক্ষার্থীদের হাতে চকলেট তুলে দিয়ে ক্লাসে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানান। এ সময় বিভিন্ন যানবাহনের কাগজ পরীক্ষাসহ মোটরসাইকেল আরোহীদের হেলমেট মাথায় দিয়ে চলাচলের নির্দেশনা দিয়ে কর্মসূচি অব্যাহত রাখে শিক্ষার্থীরা। বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত তাদের বিক্ষোভ অব্যাহত থাকে। এরপর তারা বাসায় ফিরে যায়।

শিক্ষার্থীরা জরুরি পরিবহনসহ অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস ও প্রশাসনিক কাজে ব্যবহৃত গাড়ি পারাপারে সহযোগিতা করেছে। শিক্ষার্থীদের অনেকে সেখানে পিকআপ ভ্যান, অটোরিকশার চালককে বেপরোয়ারাভাবে যানবাহন না চালানোর পরামর্শ দেওয়ার পাশাপাশি তাদের লাইসেন্সসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সঙ্গে রাখার এবং ট্রাফিক আইন মেনে চলার জন্য আহ্বান জানান।

সার্বিক বিষয়ে সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাইফুর রহমান বলেন, তারা শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার জন্য বার বার আহ্বান জানিয়েছেন। যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে ছিল।

শুক্রবার সকাল থেকে বন্ধ থাকা বাস ধর্মঘট দ্বিতীয় দিনের মতো অব্যাহত রয়েছে। দূরপাল্লাসহ অভ্যন্তরীণ কোনো রুটেই বাস চলাচল করছে না।

বাস চালকদের অভিযোগ, নিরাপত্তার কারণে তারা রাস্তায় গাড়ি চালাচ্ছেন না। কামারপাড়ার ঢাকা বাসস্ট্যান্ড, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, কুড়িগ্রাম ও সাতমাথা বাসস্ট্যান্ড ঘুরে দেখা যায় আন্তঃজেলাসহ দূরপাল্লার সব বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

বাসচলাচল বন্ধ হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছে যাত্রীরা।