পাগলা শাহিবাজারে মাদক ব্যবসায়ীরা কোপাল ২ যুবককে

ফতুল্লা(আজকের নারায়নগঞ্জ):   ফতুল্লার ডিআইটি মাঠে যখন পুলিশ সুপারের উপস্থিতিতে মাদক ও জঙ্গী বিরোধী সমাবেশ চলছে ঠিক তখনি  পাগলার শাহিবাজার এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীদের হামলার ঘটনা ঘটে।

মাদক ব্যবসায় বাধা প্রদান করায় দুইজন প্রতিবাদী যুবককে কুপিয়ে আহত করে মাদক সন্ত্রাসীরা। বুধবার ১(অক্টোবর) দুপুরে সাড়ে ৩টায় ফতুল্লার পাগলা শাহীবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলো-পাগলা শাহীবাজার এলাকায় সিমেন্ট ব্যবসায়ী সেলিম এবং হোসেন। এ ঘটনায় বুধবার রাতে সোনা মিয়া বাদী হয়ে স্থাণীয় মাদক ব্যবসায়ী ও পুলিশ সোর্স রনি ও তার সহযোগী বাবু, শাহীন, রিপন, রহমানসহ অজ্ঞাত মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ফতুল্লা শাহীবাজার পশ্চিম মহল্লা এলাকায় পুলিশ সোর্স রনির নেতৃত্বে তার ভাই বাবু, রিপন, রহমান, শাহীনসহ একদল মাদক ব্যবসায়ী দীর্ঘদীন ধরে বিভিন্ন ধরনের মাদকের ব্যবসা চালিয়ে আসছে। গ

ত কয়েকদিন ধরেই স্থাণীয় যুব সমাজ সিমেন্ট ব্যবসায়ী রহমান, সেলিম, হোসেন, সোনা মিয়া, আলতাফ মিয়াসহ স্থাণীয় মুরুব্বীগণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলেন এবং মাদক ব্যবসায়ীদের মাদক বেচাকানায় বাধা প্রদান করে আসছিল।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাদক ব্যবসায়ী পুলিশ সোর্স রনি, শাহীন, রিপন, রহমানসহ অজ্ঞাত মাদক ব্যবসায়ীরা একত্রিত হয়ে বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আচমকা প্রতিবাদী যুবকদের উপর হামলা চালায়। এ সময় মাদক ব্যবসায়ী রনি এবং বাবুর হাতে থাকা ধারালো চাপাতি দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে সেলিম এবং হোসেনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে তাদের ডাক চিৎকারে স্থাণীয় লোকজন এগিয়ে আসেন এবং মাদক ব্যবসায়ী রনি, বাবুসহ তাদের সহযোগীদের গণপিটুনি দিলে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে স্থাণীয় লোকজন মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারের জন্য তাৎক্ষনিক প্রতিবাদ মিছিল বের করেন এবং গুরুতর আহত অবস্থায় রাস্তায় পরে থাকা প্রতিবাদী যুবক সেলিম এবং হোসেনকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ খাঁনপুরস্থ ৩শ’ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।

এ ব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানার এ এস আই এজাজুল হক জানান, এ ঘটনায় সোনা মিয়া নামের এক ব্যাক্তি ফতুল্লা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।