অপ্রাপ্তবয়স্ক ও অবৈধ চালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ

আজকের নারায়নগঞ্জ ডেস্ক:   ঢাকায় গণপরিবহনে অপ্রাপ্তবয়স্ক ও ড্রাইভিং লাইসেন্সবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।

গত তিন দিন ধরে রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে চলা বিক্ষোভের মধ্যে মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ, বিআরটিএ, বিআরটিসিসহ সংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে সভা হয়। এ সভায় এই নির্দেশনা আসে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক-৫ এস এম তরিকুল ইসলাম সাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

সভায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বিআরটিএ এবং ঢাকা মহানগর পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

রোববার বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় মারা যায় রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী। সেদিনই এর প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে শতাধিক বাস ভাঙচুর করে ক্ষোভ জানায় কলেজের ছাত্ররা। পরদিন অভিযুক্ত চালককে গ্রেপ্তার, সাজাসহ নানা দাবিতে আবার সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে ছাত্ররা। সেদিন শুরুর দিকে শান্তিপূর্ণ থাকলেও বিকেলে খিলক্ষেত এলাকায় বেপরোয়া ভাঙচুর চালায় তারা।

তৃতীয় দিন আজ মঙ্গলবারও সড়ক আটকে বিক্ষোভ করে ওই কলেজসহ আশেপাশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। এদিনও ব্যাপক ভাঙচুরের পাশাপাশি একাধিক গাড়িতে আগুন দেয় তারা। শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করাসহ নয় দফা দাবি জানিয়ে আসছে।

এর মধ্যে সোমবার ফেসবুকে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে, যেখানে ১৩ বছর বয়সী মুন্নাকে বাসচালকের আসনে দেখা যায়। শিশুটি এক বছর ধরে ঢাকার আজিমপুর থেকে সাভারের নবীনগর রুটে ‘গ্রামীণ শুভেচ্ছা’ পরিবহনের বাস চালালেও পুলিশের চোখে ধরা পড়েনি। গুলিস্তান এলাকায় পুলিশ ধরলে কিছু বলবে না, সেটি মুন্না নিজে ওই ভিডিওতে বলেছে।