কাদাই গ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আটজনের মর্মান্তিক মৃত্যু

সারাবাংলা(আজকের নারায়নগঞ্জ):  সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কাদাই গ্রামে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় আরও একজনকে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- কাদাই গ্রামের মেঘা শেখের ছেলে আব্দুস সাত্তার (৫০), তার ভাতিজা আব্দুল হামিদের ছেলে ছানোয়ার হোসেন (২৫), আবু তাহেরের ছেলে আব্দুল্লাহ (১৩), কাসেমের ছেলে মমিন (৩০), আব্দুল আলীমের ছেলে সজীব, আমিনুলের ছেলে রাজু (১৪), আবুল হোসেনের ছেলে হাবিব (২৪) ও মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে রফিকুল (৩০)।

সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. ফরিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তবে হতাহতদের নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানান, কাদাই গ্রামে বর্ষার পানিতে একটি টঙ দোকান ডুবে যায়। দুপুরে স্থানীয় ১০-১২ জন দোকানটি উঠিয়ে অন্য স্থানে সরিয়ে নিচ্ছিলেন। এসময় পল্লী বিদ্যুতের একটি ছেড়া তার ওই দোকানের টিনের চালার ওপর পড়লে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে সবাই পানিতে পড়ে যান।

পরে তারটি কেটে তাদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিলে একে একে আটজনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। নিহতদের মধ্যে চারজন তাঁত শ্রমিক, একজন ব্যবসায়ী ও তিনজন ছাত্র।

উক্ত দূর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রিয়াজ উদ্দিন সহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারগন সিরাজগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শন করেন।
এদিকে তাৎক্ষণিকভাবে জেলা প্রশাসক কামরুন নাহার সিদ্দীকা জেলা প্রশাসকের পক্ষথেকে নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে ২৫ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করেন।