গোগনগরে উদ্ধার হওয়া লাশটি মডেল মাহমুদার !

সদর(আজকের নারায়নগঞ্জ):  পরিচয় মিলেছে নারায়নগঞ্জ সদর উপজেলার গোগনগরে ফ্ল্যাট বাসা থেকে উদ্ধার করা মৃতদেহের । সে শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে অবস্থিত ‘টপটেন’ নামক তৈরি পোশাক বিক্রির চেইন শপের বিক্রয় কর্মকর্তা ছিলেন। এ ছাড়াও তিনি সম্প্রতি কয়েকটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন। নাম তার মডেল মাহমুদা আক্তার (৩০) ।

নিহত মাহমুদা দেওভোগ নাগবাড়ি এলাকার ডায়াবেটিকস সেন্টারের দারোয়ান আক্কাছ আলীর মেয়ে। তাদের গ্রামের বাড়ী ময়মনসিংহ জেলা হালুয়াঘাট এলাকায়।

এক সন্তানেরর জননী মাহমুদার আগের সংসার ভেঙ্গে গেলে সম্প্রতি অজ্ঞাত এক পুরুষকে স্বামী পরিচয় দিয়ে গোগনগরের আলী আকবরের তিনতলা ভবনের নীচ তলা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিল।

এর আগে ৩০ জুলাই সোমবার রাত সাড়ে ১২টায় উপজেলার গোগনগর আলামিন নগর এলাকার মোহাম্মদ আলী আকবরের তিন তলা ভবনের নিচ তলার ফ্ল্যাট বাসা থেকে ওই লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, গত ৩ জুন স্বামী, স্ত্রী ও ৭ বছরের কন্যা সন্তানসহ পরিবারটি বাসা ভাড়া নেয়। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে ফ্ল্যাটের বাইরে থেকে তালাবদ্ধ ছিল। সোমবার রাতে ওই বাসা থেকে দুর্গন্ধ বের হলে ভাড়াটিয়ারা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ দরজার তালা ভেঙে ওই বাসার মেঝে থেকে নারীর লাশ উদ্ধার করে।
তিনি আরো বলেন, যেহেতু লাশটিতে পচন ধরে গেছে তাই সঠিকভাবে বোঝা যাচ্ছিল না কিভাবে হত্যা করা হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, তার স্বামী তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে বাসার বাইরে থেকে তালা দিয়ে