অপহরণ নয়,আত্মগোপনে ছিলেন রবি’র এসআর

সদর(আজকের  নারায়ণগঞ্জ): অপহরণ নয়, নিজেই আত্মগোপনে ছিলেন বেসরকারী মোবাইল কোম্পানী-রবি’র বিক্রয় প্রতিনিধি (সেলস রিপ্রেন্টেটিভ) সাঈদ গাজী। নিখোঁজের ২৫ দিন পর তাকে রাজধানীর কামরাঙ্গীর চরের রায়পুরা থেকে সোমবার (৩০ জুলাই) উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারের পরে তিনি স্বীকার করেছেন-কেউ তাকে অপহরণ করেনি, তিনি নিজেই আত্মগোপনে ছিলেন।

এর আগে নিখোঁজের ১৮ দিন পর (২২ জুলাই) তাকে অপহরণ হয়েছে বলে দাবি করে সদর মডেল থানা অভিযোগ দায়ের করেন তার মা হোসনে আরা।

সাঈদ গাজী সদর উপজেলার শহীদনগর এলাকার আজিজ মিয়ার ভাড়টিয়া মোস্তফা গাজীর ছেলে।

উদ্ধার হবার পর সে জানায়, তাকে অপহরণ করা হয়নি সে নিজেই পলাতক ছিলেন। মূলত তার কাছ থেকে রবি কোম্পানী ও কিছু মানুষ টাকা পেত, সেই টাকার চাপ থেকেই সে নিজে আত্মগোপনে যান। পরে সেখানে গিয়ে একটি কাজও জোগার করেন তিনি। পরে তিনি ভারতে পালিয়ে যাবার জন্য সেখানে থাকা তার বন্ধু হরিদাস পালের সাথে যোগাযোগও করেন। মূলত অর্থনৈতিক চাপের কারণেই তিনি আত্মগোপনে চলে যান বলে জানান।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, রবি কোম্পানীর ডিআইটি কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য প্রতিদিনের মত ৪ জুলাই সকালে বাস থেকে বের হয় সাঈদ গাজী। ওইদিন রাতে আর বাড়ি ফেরেনি সে। পরে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায় ও তার কোন খোঁজ খবর পাওয়া যায়নি। সকল আত্মীয় স্বজনের বাসায় খোঁজ নিয়েও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

তদন্ত কর্মকর্তা সদর মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) শামীম হোসেন জানান, অপহরণের ঘটনায় অভিযোগ পাবার পর তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে। সে নিজে থেকে আত্মগোপনে ছিল বলে স্বীকার করেছে।

.