” একজন অকবির আর্তনাদ “

–গোলাম কবির

আমি তো কোন কবিতা লিখতে পারি না,
কারণ আমি কোন কবিই নই
আমি কেবল আমার দুঃখ গুলো সেলাই করি,

গেঁথে রাখি সাদা কাগজের নিরীহ পাতায়।
আমি তো আমার আনন্দ গুলো তুলে দিই তোমাদের

সামনে আনমনা দুপুরে গাছের ছায়ায়

রাখাল বালকের বাঁশি বাজানোর মতো।
কখনো আমি চকচকে ধারালো ছুরির আঘাতে

ক্ষতবিক্ষত হৃদয়ের ক্ষরণকে সুনিপুন মেকাপম্যানের

মতো শব্দের বিন্যাসে
সংক্রামিত করতে চাই তোমাদের মাঝে,
আমায় তোমরা ক্ষমা করে দিও, যদি কষ্ট পাও।

কখনো আমি ছেঁড়াকাঁথায় শুয়ে আমার

রাজাধিরাজ স্বপ্ন গুলো বলে ফেলি
এলোমেলো শব্দের সম্পাদনায় কবিতার ঢংয়ে

তোমাদের কাছে, যদি ও জানি তা বাংলা কবিতার

কালের খেয়ায় ঠাঁই পাবে না কখনো।
আমি তো কোন কবিই নই যখন আমার কবিতায়

আমার স্বদেশ ও তার জনমানুষের সুখ দুঃখ গুলো

তুলে আনতে পারি নি কবিতায়!
আমি শুধু আমার আনন্দ ও দুঃখ গুলো
সেলাই করি আর গেঁথে রাখি রেকাবিতে
ফুল সাজানোর মতো করে!